আমার কবিতার খাতা থেকে:স্বপ্নের বাতিওয়ালা

in poetry •  2 months ago 

FB_IMG_1637499442461-01.jpeg

【তখন fb আর bike শুধু আমি use করতাম】

পঞ্চাশ বছর আগের এক স্বপ্নের কথা
ভেবে আমি আজ কবিতা লিখতে বসেছি,
সেদিন ছিলো শীতের বিদায়বেলা।
রৌদ্র ছায়ায় ইচ্ছে আর অপারগতার
অবিস্মরণীয় দ্বন্দ্বের মাঝে
হঠাৎ তোমাকে প্রথম দেখা।
সেই বিকেল কে মনে হয়েছিল
বসন্তের উদ্যম হাওয়ায়,
অফুরন্ত উল্লাস আর আনন্দের মেলা।
তারপর একদিন ও বাদ যায়নি
শফিক স্যার এর ব্যাচ,
কলেজের সকাল বিকাল সন্ধ্যা।
তবুও তুমি অদেখা অজানা ছিলে
প্রত্যেকটি শীতল রাতের
অস্বস্তিকর জড়তার মতো করে।

আমি স্বপ্ন দেখি স্বপ্নের বাতিওয়ালা হয়ে
স্বপ্ন প্রদীপ জ্বালিয়ে
আমি খুঁজি দুর্ভাগ্যের শবদেহ,
স্বপ্ন পূরণের উল্লাস
আমাদের হৃদয় অলিন্দে বসায়
রাজকীয় জলসা আতশবাজির আওয়াজ,
আমি গভীর রাতে কেঁপে উঠি
অন্যের স্বপ্ন ভাঙার নিষ্ঠুর শব্দে।
আমার স্বপের বাতিঘরে
একজন বাতিওয়ালা দরকার
আমি কপর্দহীন,
দিতে পারবো শুধু একরাশ
সাদা কালো আর বিচিত্র স্বপ্ন।


ধন্যবাদ।সবাই ভালো থাকবেন।

BoC- linet.png
-cover copy.png

|| Community Page | Discord Group ||


image.png

png_20211106_204814_0000.png

Beauty of Creativity. Beauty in your mind.
Take it out and let it go.
Creativity and Hard working. Discord

image.png

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
Sort Order:  

This post has been upvoted by @italygame witness curation trail


If you like our work and want to support us, please consider to approve our witness




CLICK HERE 👇

Come and visit Italy Community



বিচিত্র সব স্বপ্ন দেবো
তোমায় আমি এনে
ভালোবাসার পরশ দিয়ে
ধরে রেখো টেনে।

পঞ্চাশ বছর আগের
স্বপ্ন নিয়ে কথা
ভেবে ভেবে হৃদয়ে এখন
বাড়ায় ব্যাকুলতা

স্বপ্নের বাতিঘরে
জ্বালিয়ে রেখে বাতি
একলা ঘরে কাটছে আজও
স্বপ্নময় এ রাতি।♥♥

দাদা আমি বার বার আপনার কবিতা লেখার প্রতিভা দেখে মুগ্ধ হয়ে যায়।

তবুও তুমি অদেখা অজানা ছিলে
প্রত্যেকটি শীতল রাতের
অস্বস্তিকর জড়তার মতো করে।
আমি স্বপ্ন দেখি স্বপ্নের বাতিওয়ালা হয়ে
স্বপ্ন প্রদীপ জ্বালিয়ে
দাদা আপনার লেখা কবিতার এই লাইন গুলো আমার হৃদয় ছুঁয়ে গেছে। এক কথায় অসাধারণ হয়েছে কবিতাটি। অসংখ্য ধন্যবাদ দাদা আপনাকে এত সুন্দর সুন্দর কবিতা আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য। শুভকামনা রইল আপনার জন্য।

দাদা প্রথমেই একটা কথা বলি , আপনার যে ছবিটা আপনি পোস্টে ব্যবহার করেছেন , এই ছবির চেহেরাটা পুরা নায়ক ফেরদৌস এর মতো লাগছে , আমি খেয়াল করে দেখেছি দাদা , আর কবিতা তো ভাষা হীন প্রতিবারই , আমার খুবই ভালো লাগে আপনার কবিতা গুলো পড়তে আস্তে আস্তে সময় নিয়ে। অনেক সুভ কামনা রইলো দাদা।

তাহলে কি পরের ছবিতে অডিশন দেব?

প্রত্যেকটি শীতল রাতের
অস্বস্তিকর জড়তার মতো করে
কি দারুন উপমা, শব্দের ব্যবহার। আমি সত্যিই মুগ্ধ। ভীষণ ভালো লেগেছে কবিতা।

আমি কবিতা খুবই কম পড়ি। কিন্তু মাঝেমধ্যেই আপনার কবিতা পড়া হয়। কবিতার কথা গুলো কল্পনা করলে অনেকটা হারিয়ে যেতে হয় আপনার কবিতার মধ্যে। কবিতার শব্দ চয়ন জাস্ট অসাধারণ।

তবে দাদা প্রথমে আপনার পোষ্টের থাম্বনেইল দেখে মাথা ঘুরে গেছিল। ৫০ বছর আগের ফটো ওই লেখাটা পড়ে। 🤭

আমি ভাবছিলাম কোন দুই একটা লাইন নিয়ে আপনার লিখব কিন্তু প্রতিটা লাইন এত সুন্দরভাবে সাজানো। অন্ত্যমিল যে এত সুন্দর হবে একজন প্রতিষ্ঠিত কবি পক্ষে সম্ভব ।আপনার কবিতার প্রতি লাইনের এবং ছন্দ ,অন্তমিল ও শব্দ চয়ন ছিল মনমুগ্ধকর। তবে শীতের শেষে বসন্ত আপনার জীবনে বসন্ত হয়ে হয়তোবা আসেনি এখনো তবে আপনি যে কোন একজন কোকিলের কথা বারবার আপনার কবিতায় ফুটে তোলেন সেটা কিন্তু পাঠক হিসেবে আমাদের বুঝতে বাকি নেই শফিক স্যারের প্রাইভেটে সেই কোকিল আপনার জীবনে হয়তো বা এসে ধরা দেবে একদিন। সেও আপনার মত হয়তো দিতে নিভৃতে বসে কবিতায় লিখছে । আপনার জীবনে এসে আতসবাতি মতই উজ্জল করে তুলবে ।আপনার অশান্ত মন কে শান্ত করে দিবে তার কোমল হাতের ছোঁয়ায়।

দাদা 50 বছর আগের ফটো হলে কি হবে ছবিটা কিন্তু দারুণ দেখতে লাগছে।আসলে সাদা-কালোর মধ্যে অন্য একটি ব্যাপার আছে।পূর্বের ছবিগুলো এখন অনেক বিখ্যাত।যাইহোক কবিতাটি ও বরাবরের মতোই দুর্দান্ত ও অসাধারণ।কবিতার শেষ লাইন দুটি আমার কাছে বেশি ভালো লেগেছে।ধন্যবাদ দাদা।