আমার বাংলা ব্লগ। চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতি রেসিপি। ১০% beneficiary shy-fox এর জন্য।

in hive-129948 •  3 months ago 
আমার বাংলা ব্লগের সকল সহযোগী এবং সহযোদ্ধাদের জানাই আসসালামু আলাইকুম। আশা করি সকলেই ভালো আছেন। আমিও আপনাদের দোয়ায় আল্লাহর রহমতে ভালো আছি। আজকে আমি আপনাদের মাঝে নিয়ে এলাম "চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতি রেসিপি" আশা করি রেসিপিটি সকলেরই ভালো লাগবে।

চলুন ঘুরে আসি রান্নাঘর থেকে।

চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতি রেসিপি।

IMG_1656260422676.jpg

কচুর লতি আমি খুব পছন্দ করি, বিশেষ করে যদি চিকন দেশি লতি হয়, চিকন লতি বেশ মজাদার এবং কি অনেক সু সাধু। বর্ষার মৌসুমে কচুর লতির সিজন বলা যেতে পারে। যদিও পুরো বছর জুড়ে কমবেশি কচুর লতি পাওয়া যায়। কিন্তু এই বর্ষার মৌসুমে প্রচুর পরিমাণে কচুর লতি হয় সেই সাথে চিংড়ি মাছের জুড়ি নাই। আর কচুর লতি সাথে চিংড়ি মাছ কিংবা ইলিশ মাছের যেন অসাধারণ কম্বিনেশন হয়ে যায়। যেমন স্বাদে অতুলনীয় হয় তেমনি খেতেও খুব মজাদার।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


বাজারে গিয়েছিলাম মাছ কিনতে, কিন্তু কি মাছ কিনব দাম শুনে ভয় পেয়ে যাই। চিংড়ি মাছের দোকানের আশেপাশেই গুরগুর করছিলাম। কিন্তু যেই চিংড়ি মাছ ৩০০ টাকা ৪০০ টাকা কেজি ছিলো এখন ৭০০ টাকার নিচে কথায় বলা যায় না। ৭০০ টাকা দামের চিংড়ি মাছের সাথে মাত্র ৪০ টাকা কেজি কচুর লতি বিষয়টা কেমন দেখা যায়। তবুও মুখে রুচি বলে কথা, খেতে হবে, আর খেতে হলে অবশ্যই কিনতে হবে।

চিংড়ি মাছের দোকানের সামনে একবার গেলে দুই পা মনে হয় যেন পেছন দিকে চলে যাচ্ছে,হাহাহা। আমি না হয় ৭০০ টাকা করে চিংড়ি মাছ খেলাম। কিন্তু যারা গরিব মানুষ অথবা মধ্যবিত্ত মানুষ আছে তাদের পক্ষে কি আদৌ সাতশ আটশ টাকা করে চিংড়ি মাছ কিনে খাওয়া সম্ভব তাও আবার ছোট চিংড়ি। ব্যাপারটা আমাকে খুবই বাভাছিল, তবুও কি আর করার খেতে মন চাইছে তাই নিয়ে এলাম পছন্দের মাছ।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতির রেসিপি উপকরণ।

IMG_1656260529307.jpg
  • কচুর লতি আধা কেজি।
  • চিংড়ি মাছ 200 গ্রাম।
  • পেঁয়াজ কুচি দুইটা।
  • কাঁচামরিচ কুচি চার-পাঁচটা।
  • হলুদের গুঁড়া ১চা চামচ।
  • মরিচের গুঁড়া ১চা চামচ।
  • ধনিয়া গুঁড়া ১চা চামচ।
  • রসুন বাটা ২ চা চামচ।
  • আদাবাটা ১ চামচ।
  • লবণ পরিমাণমতো।
  • সয়াবিন তেল পরিমাণমতো।

FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ১

received_432621028730539.jpeg

প্রথমে চুলায় কড়াই বসিয়ে পরিমাণমতো সয়াবিন তেল দিয়ে দিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ২

received_347206107578827.jpeg

তেল গরম হওয়ার পর পেঁয়াজকুচি ছেড়ে দিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ৩

received_511108117473675.jpeg

পেঁয়াজ কুচি গুলো ভালো করে ভাজা হয়ে যাওয়ার পর প্রয়োজনীয় সবগুলো মসলা দিয়ে দিলাম। মসলা অনেকটা ভাজা হয়ে যাওয়ার পর উপরে চিংড়ি মাছ গুলো দিয়ে দিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ৪

received_1682835685395244.jpeg

চিংড়ি মাছ গুলো ভাল করে মশলা সাথে ভেঁজে নিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ৫

received_3233572063595517.jpeg

মসলাগুলো ভালো করে কষানো হয়ে যাওয়ার পর উপরে কচুর লতি গুলো ছেড়ে দিলাম।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ৬

received_1143903039512343.jpeg

মসলা এমনকি কষানো চিংড়ি মাছের সাথে কচুর লতিগুলো ভালো করে ভেজে নিলাম, অনেকটা আদা সিদ্ধ কষানো হয়ে গেছে।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ৭

received_358260109772101.jpeg

কচুর লতি গুলো কষানো হয়ে যাওয়ার পর পরিমাণমতো জল দিয়ে দিলাম ভাল করে সিদ্ধ করার জন্য।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ৮

received_476816990880222.jpeg

কচুর লতি গুলো ভাল করে সিদ্ধ হচ্ছে জলটা অনেকটা শুকিয়ে ফেলবো।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ৯

received_558917572604784.jpeg

কচুর লতি অনেকটা হয়ে গেছে আর কিছুক্ষণ পর নামিয়ে ফেলবো।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ১০

20220626_132427.jpg

সম্পূর্ণ হয়ে গেল আমার কচুর লতি রেসিপি এখন পরিবেশনের জন্য প্রস্তুত।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ১১

20220626_132521.jpg

পরিবেশন করার জন্য কিছু পরিমাণ কচুর লতি বেড়ে নিলাম। দেখেই বুঝতে পারছেন স্বাদের পরিমাণ টা কেমন হবে।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


ধাপ - ১২

20220626_132602.jpg

রেসিপি পরিবেশন করার আগে আমি একটা সেলফি তুলে নিলাম। চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতি রেসিপি অসাধারণ মজা হয়। যারা খেয়ে থাকেন এর স্বাদ সম্পর্কে অবশ্যই ধারণা আছে।


FUkUE5bzkAZT3HzV5tJDiU2ik81PCd4JCyhWnRcDN8XJsVFY3UNB8DCRWUhECrBewyvr56XLHQLFtR3iJUgyYXhoNnQzaPV4fGATT2PmXhFCBxcFCr2kEHS2obaiYPVBvHXcZ5NDLfrZh4qAU4CWzpqmK5XnDexEGztE.png


বন্ধুরা কেমন লেগেছে চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতি রেসিপিটি। আশা করি সকলের কাছেই ভালো লাগবে। ভাল মন্দ কমেন্টে জানাবেন। সাপোর্ট দিয়ে পাশে থাকবেন। আজকের মত বিদায় নিচ্ছি, আবার দেখা হবে নতুন কিছু নিয়ে। সবাই ভাল থাকুন, সুস্থ থাকুন, আল্লাহ হাফেজ।

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
Sort Order:  

চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতি রেসিপি অসাধারণ। আমার খুবই প্রিয় খাবার আমি পাই মাছ দিয়ে কচুর লতি খেয়ে থাকি। বিশেষ করে আপনার রেসিপি কালারটি খুবই চমৎকার হয়েছে। সত্যিই আপনি অসাধারণ ভাবে আমাদের মাঝে উপস্থাপনা করেছেন। আপনার জন্য অনেক অনেক শুভকামনা রইল।

মন্তব্য করে উৎসাহ দেওয়ার জন্য আপনার প্রতি রইল আন্তরিক অভিনন্দন।

চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতি আমার ভীষণ প্রিয়। এবং এটি রান্না করে খেলে খারাপ লাগে না। আপনি অনেক সুন্দর করে সাজিয়ে উপস্থাপনা করেছেন। অসংখ্য ধন্যবাদ আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য। আপনার জন্য শুভকামনা রইল।

আপনার প্রিয় খাবারের রেসিপি করতে পেরেছি যেনে খুবই ভালো লাগছে। আমারও খুব প্রিয় কচুর লতি। শুভেচ্ছা রইল আপনার জন্য।

চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতি রেসিপি এভাবে তৈরি করে খেতে অনেক মজা লাগে ভাইয়া। অনেকদিন আগে আমি আপনাদের মাঝে চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর ডাটা রেসিপি শেয়ার করেছিলাম। খেতে অবশ্য অনেক সুস্বাদু হয়েছিল । আপনার রেসিপি দেখে বোঝা যাচ্ছে খেতে অনেক সুস্বাদু হয়েছে। ধন্যবাদ ভাইয়া

কচুর জন্য সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ বন্ধু হচ্ছে চিংড়ি মাছ এবং ইলিশ মাছ, তাদের দুজনের কম্বিনেশন অনেক মজাদার হয়। শুভেচ্ছা রইল আপনার জন্য।

কচুর লতি বেশ ভালোই লাগে খেতে। তবে সর্থ হচ্ছে সুন্দর করে তৈল দিয়ে ভাজতে হবে তাইলেই সুস্বাদু হবে।কারন লতি ভালো করে না ভাজলে খেতে ভালো লাগে না। তবে সব থেকে চিংড়ি মাছ দিয়ে রান্না করলে সবচেয়ে মজাদার হয়। তাই আপনি উপস্থাপন খুবই সুন্দর ভাবে দিয়েছেন ধন্যবাদ।

কাঙ্খিত মন্তব্য করে উৎসাহ দেওয়ার জন্য শুভেচ্ছা রইল।

কচুর লতি দিয়ে চিংড়ি মাছ খেতে আমি খুবই পছন্দ করি। আজকে আপনি খুবই সুন্দরভাবে কচুর লতি দিয়ে চিংড়ি মাছ রান্না করেছেন। যা দেখেই তো আমার খেতে ইচ্ছা করছে। এত সুন্দর এবং মজাদার রেসিপি আমাদের মাঝে উপস্থাপন করার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ ভাইয়া।

পছন্দ কেনই বা করবেন না, আসলে এটা মজার একটি খাবার। সুন্দর মন্তব্য করে উৎসাহ দেওয়ার জন্য শুভেচ্ছা রইল।

চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতি রেসিপি দেখে খুবই মজাদার মনে হচ্ছে। আসলে চিংড়ি মাছের রেসিপি গুলো খেতে খুবই সুস্বাদু হয়। তাই আমার খেতে খুবই ভালো লাগে। আজকে আপনার রেসিপি আমার অনেক ভালো লেগেছে। সুন্দরভাবে উপস্থাপন করেছেন, শুভকামনা রইল।

আপনার ভালো লেগেছে জেনে খুবই আনন্দবোধ করছি। কারণ আমার রেসিপি করাটা সার্থক হয়েছে। শুভেচ্ছা রইল আপনার জন্য।

আসলে এখন বারোমাসই কচুর লতি পাওয়া যায় ।কচুর লতি চিংড়ি মাছ ইলিশ মাছ দিয়ে আসলে অনেক মজাদার হয়। আপনি 700 টাকার চিংড়ি সাথে 40 টাকা দামের কচুর লতি রান্না করেছেন ঠিকই তো কোথায় 700 টাকায় 40 টাকা। আর এত ছোট ছোট চিংড়ি গুলো এমনি কোন ভাবে রান্না করলে ভালো লাগেনা কচুর লতি দিয়ে রান্না করলে একটু ভালো লাগে। তাছাড়া এগুলো তো আমি সাপোর্ট হিসেবে ব্যবহার করি যেকোনো ভাজির ভিতর এটি দিয়ে থাকি।

ছোট চিংড়ি মাছ দিয়ে যেকোনো কিছু ভাজি করলে বেশ দারুন লাগে। আপনি ঠিকই বলেছেন 700 টাকা কেজি না হয় আমি আর আপনি খেলাম। কিন্তু যারা দিনে 500 টাকা ইনকাম করে তারা কি করবেন। আপনার মূল্যবান সময় দিয়ে মন্তব্য করার জন্য শুভেচ্ছা রইল।

কচুর লতি চ্যাপা দিয়ে রান্না করে খেতে আমার খুবই ভালো লাগে ভাইয়া । কচুর লতি দিয়ে চিংড়ি মাছ দিয়ে খেয়েছি ।খুবই মজার একটি রেসিপি আপনি শেয়ার করেছেন ।ধন্যবাদ আপনাকে ।

শুটকি খাই না এ কারণে শুটকির প্রসঙ্গ আসেনি ভাই। একেকজনের একেকরকম অভিরুচি। শুভেচ্ছা রইল সুন্দর মন্তব্য করে উৎসাহ দেওয়ার জন্য।

লতি আমার অনেক প্রিয় একটি সবজি। আপনি চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতি রেসিপি তৈরি করেছেন। আপনার রেসিপি দেখেই বুঝা যাচ্ছে অনেক মজা হয়েছে। আপনার জন্য রইলো অনেক অনেক শুভকামনা।

আপনার প্রিয় জিনিস মজা না হলে হইতেই পারে না। তবে অনেক অলস মানুষ আছে লতি পরিস্কার করার ভয়েতে লতি খেতে চায়না। কাঙ্খিত মন্তব্য করে উৎসাহ দেওয়ার জন্য শুভেচ্ছা রইল।

চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতি রেসিপি খেয়েছি অনেক মজাদার হয় আর আপনার শেয়ার করা চিংড়ি মাছের সমন্বয়ে তৈরি কচুর লতি রেসিপি দেখে বেশ সুস্বাদু মনে হচ্ছে। তাছাড়া এই রেসিপিটি কিভাবে তৈরি করেছেন সেটা সুন্দরভাবে আমাদের মাঝে উপস্থাপন করেছেন আপনার জন্য অনেক অনেক শুভকামনা রইল ভাইয়া।

আপনার গঠনমূলক মন্তব্যের জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

কচুর লতি চিংড়ি মাছ দিয়ে লোভনীয় একটি রেসিপি প্রস্তুত করেছেন রেসিপি দেখে খুব লোভ হচ্ছে কিন্তু নিশ্চয়ই খুব মজা হয়েছিল আসলে চিংড়ি মাছ বরাবরই আমার অনেক ফেভারিট সুন্দর উপস্থাপনা করেছেন ধাপগুলো শুভেচ্ছা রইল আপনার জন্য

আসলে ভাইয়া কচুর লতি চিংড়ি মাছের সমন্বয় বেশ মজাই হয়, শুভেচ্ছা রইল আপনার জন্য।

আমার খুব পছন্দের একটি রেসিপি আপনি শেয়ার করেছেন এ জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। কারণ চিংড়ি মাছ এবং কচুর লতি দুটি আমার খুব পছন্দের খাবার আর এই দুইটি যখন একই সঙ্গে ম্যাচ করে রেসিপি তৈরি করেছেন সেটা আমার কাছে অনেক প্রিয়।

আপনি ঠিকই বলেছেন কচুর লতির সাথে চিংড়ি মাছের ম্যাচ টা খুব দারুন হয় এবং স্বাদ টা সেই লাগে। মন্তব্য করে উৎসাহ দেওয়ার জন্য আপনার প্রতি রইল আন্তরিক অভিনন্দন।

চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতি রান্না রেসিপি আপনি আমাদের মাঝে শেয়ার করেছেন কচুর লতি আমি তেমন একটা খেতে পারতাম না কিন্তু এখন মাঝে মাঝে খাই। আপনার এই রেসিপি দেখেই বোঝা যাচ্ছে খুবই সুস্বাদু ছিল শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।

দারুন একটা সবজি খেতে ভালই লাগে। মন্তব্য করেছে সাথে থাকার জন্য শুভেচ্ছা রইল।

কচুর লতি আমার খুবই প্রিয় আমার কাছে খুবই ভালো লাগে আমিও প্রায় সময় ইলিশ দিয়ে অথবা চিংড়ি মাছ দিয়ে লতি রান্না করি ।এই দুটো ছাড়া যেন লতি ভালো লাগে না। আপনার রেসিপি দেখে খুব খেতে ইচ্ছে করছে ।আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ দিয়ে চিংড়ি রান্নার রেসিপি আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য। আপনার জন্য শুভেচ্ছা রইল।

আপনার প্রিয় জিনিসের রেসিপি করতে পেরেছি জেনে খুবই ভালো লাগছে। এবং কাঙ্ক্ষিত মন্তব্য করে পাশে থাকার জন্য শুভেচ্ছা রইল।

চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতির দারুন এক রেসিপি এটি। খুবই সুস্বাদু লাগে খেতে। এই রেসিপি দিয়ে মাখা মাখা করে ভাত খেতে যা লাগেনা। অসাধারন।

উৎসাহ দেওয়ার জন্য শুভেচ্ছা রইল।

চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতি খেতে আমার কাছে অনেক ভালো লাগে। বাসায় আমি প্রায়ই এটা রান্না করি। আপনি অনেক সুন্দর করে ধাপ গুলো গুছিয়ে লিখেছেন। আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ এত সুন্দর একটি রেসিপি আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য। আপনার জন্য অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও শুভকামনা রইল।

আপনার বাসায় প্রায় সময় রান্না করেন জেনে খুবই ভালো লাগছে। সুন্দর মন্তব্য করে উৎসাহ দেওয়ার জন্য শুভেচ্ছা রইল।

চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতি খেতে আমার ভীষণ ভালো লাগে। গরম ভাতের সাথে কচুর লতি খেতে বেশি ভালো লাগে। আপনি চমৎকারভাবে রেসিপিটি তৈরি করেছেন। শুভকামনা রইল আপনার জন্য।

একদম ঠিক বলেছেন গরম ভাতের সাথে সেই লাগে, শুভকামনা রইল আপনার জন্য

কিছুদিন যাবত আমি মাছের সাথে কচুর লতি রেসিপি দেখে আসছি। অবশ্য আমাদের এদিকে কচুর লতি তেমন একটা খাওয়া হয়না। তবে আমার বাংলা ব্লগ কমিউনিটি তে বন্ধুদের কচুর লতি খাওয়ার অভিজ্ঞতা দেখে আমারও খুব ইচ্ছে হয়েছে ইহা রান্না করে খাওয়ার জন্য, চেষ্টা করব। সুন্দর হয়েছে আপনার রেসিপি।

কি যে বলেন না আপনাদের ওদিকে কচুর লতি খায় না এত মজাদার একটা সবজি। একবার খেয়ে দেখবেন অবশ্য ভালো লাগবে।

চিংড়ি দিয়ে কচুর লতি আমার খুব পছন্দ।খুব প্রিয় একটি রেসিপি। কিছু দিন আগে আমিও খেয়েছি। আপনি চিংড়ি মাছ দিয়ে খুব সুন্দর করে কচুর লতি রান্না করেছেন। আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ এটা আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য। আপনার জন্য শুভেচ্ছা।

যারা একটু ঝগড়াটে তারা কচুর লতি খেতে চায় না কারণ তাদের গলা চুলকায়,হাহাহা। কিন্তু আপনি প্রায় সময়ই খেয়ে থাকেন নিশ্চয়ই আপনি অনেক ভালো মানুষ। সুন্দর মন্তব্য করে সাথে থাকার জন্য শুভেচ্ছা রইল।

চিংড়ি মাছ ও কচুর লতি 😍😋!! আমার অনেক অনেক পছন্দের একটি খাবার। আমার মনে হয় না এমন কেউ আছে যে এই খাবারটি পছন্দ করেনা। অনেক সুন্দর ভাবে আপনি আপনার রেসিপি পোস্টটি উপস্থাপন করেছেন। অনেক ধন্যবাদ আপনাকে এবং অনেক শুভকামনা রইলো আপনার জন্য। এভাবেই এগিয়ে যান এই কমিউনিটিতে।

আপনার ভালো লাগার মত একটা রেসিপি করতে পেরেছি জেনে খুবই ভালো লাগছে। আপনার উৎসাহ গুলো দেখলে এতটাই আনন্দ অনুভব হয়ে যা বাসায় প্রকাশ করতে পারবোনা। ভালোবাসা অবিরাম আপু।

কিন্তু যেই চিংড়ি মাছ ৩০০ টাকা ৪০০ টাকা কেজি ছিলো এখন ৭০০ টাকার নিচে কথায় বলা যায় না।

ঠিক বলেছেন ভাইয়া হঠাৎ করেই যেন চিংড়ি মাছের দাম আকাশচুম্বী হয়ে গেল। এত বেশি পরিমাণে এর দাম বৃদ্ধি পেয়েছে আর কোনোভাবেই স্পর্শ করা যাচ্ছে না।

আজকে আপনি আমাদের মাঝে চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতির খুবই লোভনীয় একটা রেসিপি তৈরি করে শেয়ার করলেন ভাইয়া।

আসলে ভাইয়া মাঝে মাঝে ভাবনা গুলো এমনিতেই চলে আসে। আসলে যারা দিনমজুর কিংবা মধ্যবিত্ত তারা কিভাবে খাবে কিভাবে চলবে। শুভেচ্ছা রইল আপনার জন্য।

চিংড়ি মাছ দিয়ে কচুর লতি আমার ভীষণ পছন্দের। খেতেও দারুন লাগে।আপনি অনেক সুন্দর করে রান্নাটি রেধেছেন। দেখে খেতে ইচ্ছা করতেছে। ধন্যবাদ ভাই আমাদের সাথে রেসিপিটি ভাগ করে নেয়ার জন্য

আপনার পছন্দের জিনিস তৈরি করতে পেরেছি বিদায় নিজের কাছে খুবই ভালো লাগছে। মন্তব্য দিয়ে সাথে থাকার জন্য শুভেচ্ছা রইল।

কচুর লতি খাই না অনেকদিন হলো। চিংড়ি মাছ দিয়ে এতো সুস্বাদু খাবার আমি অনেক মিস করছিলাম। আপনার পোষ্টটি দেখে আমার মন ভরে গেল কিন্তু যে লোভ লেগে গেছে সেটার সমাধান কিভাবে?? অনেক ধন্যবাদ সুন্দর উপস্থাপনার জন্য

ভাইয়া চলে আসেন তৈরি করে খাওয়াবো মিস করার প্রয়োজন হবে না, যত তাড়াতাড়ি পারেন দাওয়াত নেন। শুভেচ্ছা রইল আপনার জন্য।