কার্প মাছ ভুনা রেসিপি//১০% প্রিয় লাজুক খ্যাককে

in hive-129948 •  2 months ago 

আমার বাংলা ব্লকের সকল বন্ধুরা🐠🐠

আসসালামু আলাইকুম 🐠🐠

প্রীতি ও শুভেচ্ছা 🐠🐠

আশা করি সবাই ভাল আছেন। আমিও আলহামদুলিল্লাহ ভালো আছি। আজ আমি আপনাদের মাঝে যে রেসিপিটি নিয়ে হাজির হয়েছি তা হচ্ছে সুস্বাদু কার্প মাছ ভুনা রেসিপি।

  • এই কার্প মাছগুলো আমাদের পুকুর থেকে উঠানো হয়েছে। ভীষণ সাধের এই মাছগুলো সবাই খেতে পছন্দ করবে।পেঁয়াজ বেশি দিয়ে ভুনা করলে এর ঝোল দিয়ে এক প্লেট ভাত নিমিষেই শেষ করে ফেলা যাবে। পুকুরের মাছের স্বাদ একটু ভিন্ন ধরনের হয়েই থাকে অন্যান্য মাছের তুলনায়। আমাদের পুকুর থেকে প্রায় সময় বিভিন্ন মাছ উঠানো হয়। আর সবাই মিলে ভাগ করে নিয়ে খেতে ভীষণ ভালো লাগে।এই মাছ গুলো আমাদের পুকুর থেকে উঠানো মাছ।তাই বেশ মজা করে খেয়েছি।তাই আপনাদের সাথে ভাগাভাগি করে নিতে চলে এলাম।তাহলে চলুন দেখে নেয়া যাক আমার আজকের রেসিপি টি।

20220809_213937.jpg

20220809_213929.jpg

💘 প্রয়োজনীয় উপকরণ সমূহ💘

  • কার্প মাছ
  • কার্প মাছের ডিম
  • পেঁয়াজ কুচি
  • কাঁচা মরিচ কুচি
  • হলুদের গুঁড়ো
  • মরিচের গুঁড়ো
  • জিরার গুঁড়ো
  • রসুন পেস্ট
  • লবণ
  • তেল

20220809_161504.jpg

20220809_161413.jpg

20220809_161713.jpg

20220809_161950.jpg

💘 প্রথম ধাপ💘

  • প্রথমে আমি মাছের মধ্যে হলুদের ও লবণ মাখিয়ে নিলাম।

20220809_162354.jpg

💘 দ্বিতীয় ধাপ💘

  • আরেকটি কড়াই এর পরিমাণ মতো তেল দিয়ে তার মধ্যে মাছগুলো ছেড়ে দিলাম।

20220809_162252.jpg

20220809_162432.jpg

💘তৃতীয় ধাপ💘

  • দুই পিঠ ভালো করে ভাজা হলে পাতিল চুলা থেকে নামিয়ে মাছগুলো নামিয়ে ফেললাম।

20220809_163039.jpg

20220809_164051.jpg

চতুর্থ ধাপ💘

  • এবার কড়াইয়ে তেল দিয়ে তার মধ্যে পেঁয়াজকুচি ও কাঁচা মরিচ কুচি দিয়ে দিলাম।

20220809_164418.jpg

20220809_164510.jpg

💘 পঞ্চম ধাপ💘

  • এবার সবগুলো মসলা দিয়ে ভালোভাবে নেড়ে নিলাম।

20220809_164522.jpg

20220809_164552.jpg

💘 ষষ্ঠ ধাপ💘

  • এবার মাছের ডিম দিয়ে দিলাম।অল্প কিছু পানি দিয়ে নেড়ে নিলাম।

20220809_164721.jpg

20220809_165306.jpg

💘সপ্তম ধাপ💘

  • এবার ভেজে রাখা মাছগুলো দিয়ে পানি দিয়ে দিলাম।

20220809_165407.jpg

20220809_165414.jpg

💘 অষ্টম ধাপ💘

  • তারপর ঝোল ঘন হয়ে এলে পাতিল চুলা থেকে নামিয়ে নিলাম।

20220809_172254.jpg

💘 চূড়ান্ত ধাপ💘

  • এবার মাছ পরিবেশন করে ছবি তুলে নিলাম।

20220809_213916.jpg

20220809_213913.jpg

🌺 আশা করি আমার আজকের রেসিপি টি আপনাদের ভালো লাগবে।ভুল ত্রুটি হলে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। 🌺

🌺 ধন্যবাদ সবাইকে আমার পোস্টটি দেখার জন্য ও পড়ার জন্য🌺

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
Sort Order:  

একদম ঠিক বলেছেন আপু পুকুরের মাছ গুলো খেতে একটু ভিন্ন স্বাদ লাগে। আজ আমাদের ও পুকুরের মাছ ধরা হয়েছে। আমার কাছে কেন জানি পুকুরের মাছ খেতে অনেক ভালো লাগে ।
আপনার রেসিপি দেখে বোঝা যাচ্ছে খেতে অনেক সুস্বাদু হয়েছে আপু। ধন্যবাদ আপনাকে আপু

আসলে আপু চাষ করা মাছের থেকে পুকুরের মাছের মজাই আলাদা। কারন সেখানে কোন কৃত্রিম ঔষধ বা খাবার মিশিয়ে মাছকে খাওয়ানো হয় না।যার কারণে পুকুরের মাছ খেতে আমার কাছে বেশি ভালো লাগে। ধন্যবাদ আপু আপনার মূল্যবান মতামতের জন্য।

নিজেদের পুকুর থেকে উঠানো মাছ এমনিতেই সুস্বাদু হয়। কারণ ওইখানে কোনো ধরনের ফরমালিন জাতীয় কিছু মিশানো হয় না। মাছের সাথে মাছের ডিমও রয়েছে দেখছি। যেকোন মাছের ডিম আমার খুব পছন্দ। আপনার রেসিপিটি দেখে খুবই লোভনীয় লাগছে। রেসিপির কালার টা দারুন হয়েছে।

একদম ঠিক বলেছেন নিজের পুকুর থেকে উঠানো মাছে কোন ফরমালিন থাকে না তাই নিঃসন্দেহে খাওয়া যায়। আর এমনিতেও পুকুর থেকে তাজা মাছ উঠিয়ে রান্না করি খাওয়ার মজাই আলাদা। আমারও মাছের ডিম অনেক পছন্দ। ধন্যবাদ আপনার মন্তব্যের জন্য।

আপু কার্প মাছ যেমন তেমন মাছের ডিম গুলো দেখে তো মনকে আর মানাতে পারতেছি না। আর সেটা যদি হয় নিজের পুকুরের মাছ,তাহলে তো কোন কথাই নেই,সাথে সাথে একটি উৎসব হয়ে যাবে। আপু আপনার কড়াইয়ে তৈলের মধ্যে গাছ পালার ছবি ভাসতেছে,তার কারনটা বুঝলাম না।

আমার কড়াইয়ের তৈলের মধ্যে গাছপালার ছবি দেখলেন আপনি হাহাহা। আপনার চোখ তো খুবই প্রখর। আসলে আমি মাটির চুলায় রান্না করছিলাম উপরে ছিল আমগাছ তাই আম গাছের ছায়া পড়েছিল তাই এমন দেখাচ্ছে। আর হ্যাঁ পুকুরের মাছ খাওয়ার মজাই আলাদা। মাছের ডিম গুলো আমার কাছে অনেক মজা লেগেছিল।

মাছ ভুনার আভিজাত্য হচ্ছে পেঁয়াজ।। যত বেশি পেঁয়াজ দিয়ে মাছ ভুনা করা হবে খেতেও তত বেশি সুস্বাদু হবে।। আপনি কাপ মাছ এবং কাপ মাছের ডিম দিয়ে লোভনীয় একটি রেসিপি প্রস্তুত করে আমাদের মাঝে উপস্থাপন করেছেন । দেখেই জিভে দল চলে আসলো।। স্পেশালী মাছের ডিম আমার সবথেকে বেশি ভালো লাগে খেতে মাছের ডিম দেখে যেন লোভ সামলাতেই পারছি না।।

বাহ আপনার একথাটি অনেক ভালো লেগেছে মাছ ভুনার আভিজাত্য হচ্ছে পেঁয়াজ। আসলেই পেঁয়াজ নাহলে মাঝে মাঝে কিভাবে এত মজা করা আছে তো।
বুঝিনা।আর মাছের ডিম কিন্তু আমার অনেক পছন্দের খাবার। আপনারা দেখছি মাছের ডিম অনেক পছন্দের শুনে অনেক ভালো লাগলো।

বাহ আপু নিজের পুকুরের মাছ ও মাছের ডিম ভুনা করেছেন দেখে লোভ লেগে গেল। আসলে মাছের সাথে ডিম থাকলে খেতে অনেক মজা লাগে। নিজের পুকুরের মাছ এমনিতে অনেক সুস্বাদু এখানে কোন সার ঔষধ দেওয়া থাকে না বলে। রেসিপির কালারটা অসাধারণ ছিল।

আসলে আপু নিজের পুকুর থেকে উঠানো মাছ খাওয়ার মজাই আলাদা। কারণ পুকুর থেকে উঠলে মাছ গুলো খুবই তাজা থাকে খেতেও অন্যরকম মজা।আর এর বিশেষ কারণ হচ্ছে এই মাছে কোন ঔষধ দিয়ে বড় করা হয় না ।

আপনার কার্প মাছ ভুনার রেসিপিটি লোভনীয় দেখাচ্ছে ।আপনাদের পুকুরের মাছ নিশ্চয়ই খেতে বেশ সুস্বাদু হবে ।বেশি করে পেঁয়াজ দিয়ে সি মাছ রান্না করলে আসলেই খেতে সুস্বাদু লাগে। আপনি মাছের ডিম ও মাছের সঙ্গে একসঙ্গে দিয়ে দিয়েছেন দেখে ভালো লাগলো।ধন্যবাদ আপনাকে।

কার্প মাছ গুলো আসলেই অনেক লোভনীয় হয়েছি।আমার অনেক পছন্দের মাছের মধ্যে কার্প মাছ হচ্ছে অন্যতম । আমাদের পুকুরের মাছ গুলো একটু অন্যরকম স্বাদ লাগে আমার কাছে। তাজা মাছ ভাজা করে খাওয়ার মজাই আলাদা। আপনাকে অনেক ধন্যবাদ চমৎকার মতামত দেয়ার জন্য।

আসলে দেখতে ভালো হলে খেতে অনেকটা ভালো লাগে।কারন দেখার তৃপ্তির সাথে খাবারের স্বাদ নিহিত। আসলে এত কিছু বলার মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে আপনার রেসিপিটি দেখতে খুবই চমৎকার হয়েছে তা বলার জন্য। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে চাষের মাছের মধ্যে সবচেয়ে সুস্বাদু হয় নিজেদের পুকুরের মাছ।কারন নিজেদের পুকুরের মাছে ভালো মানে খাবার দেওয়া হয় যা অনেক পুকুরে দেওয়া হয় না।তাছাড়া কার্প মাছ পেঁয়াজ দিয়ে ভুনা করলে খেতে খুবই সুস্বাদু লাগে।অসংখ্য ধন্যবাদ আপু, এত সুস্বাদু ও মজাদার করে কার্প মাছের ভুনা রেসিপি তৈরি করে আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য।আপনার জন্য শুভকামনা রইল আপু।

একথা একদম ঠিক বলেছেন দেখতে ভালো হলেই খেতেও ভালো লাগে। আমরা খাবার টেস্ট করার আগে দেখি রান্নার কালার কেমন হয়েছে।যখনই দেখি রান্নার কালার চমৎকার হয়েছে তখনই বুঝা যায় খাবারটি খেতে মজা হবে । আর কার্প মাছ এমনিতেই আমার কাছে অনেক ভালো লাগে কারণ এটি অনেক সুস্বাদু একটি মাছ।

পেঁয়াজ বেশি দিয়ে ভুনা করলে এর ঝোল দিয়ে এক প্লেট ভাত নিমিষেই শেষ করে ফেলা যাবে।

পেঁয়াজ বেশি দিয়ে রান্না করলে মাছের থেকে ঝোল খেতেই সবথেকে বেশি ভালো লাগে।

আজকে আপনি আমাদের মাঝে খুবই চমৎকারভাবে কার্প মাছ ভুনা করার একটা পদ্ধতি শেয়ার করেছেন আপু। আসলে এই ধরনের মাছগুলো ঝোল করে রান্না করা থেকে ভুনা করে রান্না করলেই সব থেকে বেশি সুস্বাদু মনে হয় আমার কাছে।

একদম ঠিক বলেছেন পেঁয়াজ বেশি দিয়ে রান্না করলে মাছের থেকে ঝোল খেতে বেশি ভালো লাগে। মাছের ঝোল দিয়ে এক প্লেট ভাত নিমিষেই খেয়ে ফেলা যাবে।আপনাকে অনেক ধন্যবাদ আপনার মূল্যবান মতামতের জন্য।

কার্প মাছ অনেক দিন হলো খাওয়া হয়না। আপনিতো চমৎকার ভাবে কার্প মাছ ভুনা রেসিপি শেয়ার করেছেন। দেখে তো খেতে ইচ্ছা করছে আপু। এভাবেই এগিয়ে যান।

কার্প মাছ যেহেতু আপনার অনেকদিন ধরে খাওয়া হয়না। তাহলে ঝটপট বাজার থেকে নিয়ে এসে আমার মত করে রান্না করে খেয়ে ফেলেন আশা করি ভালো লাগবে।

লোভনীয় একটি রেসিপি শেয়ার করেছেন আপু। নিজের পুকুরের মাছ রান্না করে খাওয়া এটি অন্যরকম ভালো লাগে। আসলে পিঁয়াজ ভুনা দিয়ে মাছ রান্না করলে বেশ সুস্বাদু হয়। মাছের মধ্যে প্রচুর পরিমাণ ডিম ও বের হয়েছে।এই ডিমগুলো আলু দিয়ে ভাজি করলে বেশ সুস্বাদু হয়। আসলে নিজের পুকুরের মাছ খাওয়া মজাটাই আলাদা। রেসিপি টা সবমিলিয়ে দারুন হয়েছে। রান্নার পদ্ধতি টা প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত খুবই সহজভাবে দেখিয়েছেন। ধন্যবাদ আপু আপনাকে।

আসলে ভাইয়া পুকুরের মাছ অনেক লোভনীয় হয়ে থাকে। বেশিরভাগ মানুষই পুকুরের মাছ খেতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে। আর এই সুযোগটা গ্রামের মানুষ বেশি পেয়ে থাকে। কার্প মাছ পেঁয়াজ বেশি করে দিয়ে আমি ভুনা করেছি আসলেই খেতে দারুন লেগেছিল। আপনি কি অনেক ধন্যবাদ মতামতের জন্য।

মাছের ডিম গুলো দেখে মন চাচ্ছে তুলে নিয়ে খেতে। নিজের পুকুরে যদি মাছ চাষ করা হয় তাহলে সেই মাছগুলো তুলে খেতে খুবই ভালো লাগে। আর সেই মাছগুলো খেতেও অনেক ভালো হয়। নিজের পুকুরের মাছ খাওয়ার মজাই আলাদা। লোভনীয় রেসিপি শেয়ার করেছেন আপু।

আসলে আপু এই ধরনের রেসিপি গুলো দেখলে ইচ্ছে করে সাথে সাথে খাই নইলে যেন তর সয়না। আর নিজের পুকুরের মাছ হলে তো কোন কথাই নেই। আপনিও চাইলে আমার মত করে মাছ ভুনা করে খেয়ে দেখতে পারেন আশা করি ভালো লাগবে।

পুকুরের যেকোনো মাছ হোক না কেন সেটা অনেক স্বাদের হয়ে থাকে। আমরা ছোটবেলা থেকে নিজের পুকুরের মাছ খেয়ে বড় হয়েছি, বিয়ের পর যখন ঢাকায় যাই তখন তো একদম মাছ খেতে পারিনি, মাছ খেতে গেলেই কেমন জানি একটা গন্ধ লাগতো এখনও তৃপ্তি সহকারে কেনা মাছ খেতে পারিনা। আপু কার্প মাছের ভুনা রেসিপি টি খুবই সুন্দর হয়েছে, দেখেই বোঝা যাচ্ছে খেতে অনেক সুস্বাদু হয়েছিল। ধন্যবাদ আপু সুন্দর করে রেসিপি টি উপস্থাপন করার জন্য।

একদম ঠিক বলেছেন পুকুরের মাছের কোন ভিন্নতা নেই যে কোন মাছেই অনেক মজা হয়ে থাকে। আর কার মাছ এমনিতেই অনেক মজার একটি মাছ। আসলেই আপু যারা সব সময় পুকুরের মাছ খায় তারা হঠাৎ করে অন্য কোন মাছ খাওয়ার জন্য অভ্যস্ত হয়ে ওঠেনা। আপনার বেলায়ও তাই ঘটেছে।

বেশ কয়েকটি কার্প জাতীয় মাছ রয়েছে, মাছ সম্পর্কে আমার তেমন ধারনা নেই তবে সত্যিই এই জাতীয় মাছ গুলো বেশি পেঁয়াজ দিয়ে ভুনা করলে বেশ চমৎকার লাগে খেতে, আপনিও একইভাবে পরিবেশন করেছেন এবং উপস্থাপন করেছেন চমৎকারভাবে আমাদের সামনে। দারুন হয়েছে আপনার প্রতিটি ধাপ শুভকামনা রইল আপনার জন্য।

আসলেই কার্প মাছের অনেকগুলো জাত রয়েছে। আমাদের হয়তো সব ধরনের মাছ সম্পর্কে তেমন ধারণা নেই তবে মাছগুলো খেতে যে মজা সেটাও আমরা ঠিকই বুঝতে পারি। কাজটা দিয়ে মাছ এমনিতেই অনেক মজার মাছ। ধন্যবাদ আপনার মতামতের জন্য।

আপনি অনেক সুন্দর ভাবে কার্প মাছটি ভুনা রেসিপি করেছেন। সুন্দরভাবে তৈরি করা পাশাপাশি ধাপগুলো অনেক সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করেছেন।
আপনার জন্য শুভকামনা রইল

আসলে ভাইয়া আমি কার্প মাছগুলো ভুনা করে আপনাদের মাঝে শেয়ার করব বলেই প্রতিটি ধাপ খুব সহজভাবে ছবি তুলে প্রকাশ করেছি। আশা করছি আপনাদের বুঝতে কোন অসুবিধা হবে না। ধন্যবাদ আপনাকে

আপু আপনি খুব সুন্দর ভাবে কার্প মাছ ভুনা রেসিপি তৈরি করেছেন। আপনার রেসিপি দেখে মনে হচ্ছে খুবই সুস্বাদু হয়েছিল। এভাবে বড় মাছ ভুনা খেতে অনেক ভালো লাগে। ঠিক বলেছেন আপু পুকুরে মাছের মজাই আলাদা। আপনি রেসিপির প্রতিটি ধাপ খুব সুন্দর ভাবে বর্ণনা করেছেন। ধন্যবাদ মজাদার রেসিপি শেয়ার করার জন্য। আপনার জন্য শুভকামনা রইল।

যেকোনো মাছ আমার অনেক পছন্দ যেহেতু আমরা মাছের ভাতে বাঙালি তাই মাছ না খেলে আমাদের চলেই না। আর গ্রামাঞ্চলে থাকার সুবাদে বেশিরভাগই পুকুরের মাছ খাওয়া হয়ে থাকে। কার্স মাছ আমার অনেক পছন্দের মাছ। সেই সাথে মাছের ডিম ভুনা খেতে অনেক ভালো লাগে।