‘আমার বাংলা ব্লগ’-সাপ্তাহিক হ্যাংআউট রিপোর্ট-২১ (Weekly Hangout Report-21)

in hive-129948 •  9 months ago  (edited)

weekly hangout cover design.png

ভূমিকাঃ

“আমার বাংলা ব্লগ”- এখন শুধু একটি কমিউনিটির নাম না বরং সকলের নিকট জনপ্রিয় মাধ্যম, নিজের ভাষায় আবেগ, অনুভূতি ও ভালোবাসা প্রকাশের। দিন দিন যার জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং শীর্ষে উঠে আসছে র‍্যাংকিং এ। আসলে আমার বাংলা ব্লগ এর যাত্রা শুরু হয় মাতৃভাষায় মনের ভাব প্রকাশে স্টিম ব্লকচেইন এ সুযোগ সৃষ্টি করার লক্ষ্য নিয়ে। পুরো পৃথিবীতে ছড়িয়ে থাকা বাংলা ভাষাভাষী কমিউনিটিকে এক প্লাটফর্মে নিয়ে আসা এবং পারস্পরিক সম্পর্ক সৃষ্টির মাধ্যমে ভাষার প্রতি ভালাবাসা সৃষ্টি করা এবং নিজেদের বন্ধনকে আরো মজবুত করা। আমাদের বিশ্বাস আমরা খুব দ্রুততম সময়ের মাঝে আমাদের লক্ষ্যে পৌছাতে সক্ষম হবো। আমার বাংলা ব্লগ কমিউনিটিতে এখন পর্যন্ত ১২৬৮ জন সদস্য হয়েছেন এবং বর্তমান এ্যাকটিভ পোষ্টের সংখ্যা ২০৫।

আমরা পুরো বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে থাকা বাঙালীদের নিজের মাতৃভাষায় আবেগ, অনুভূতি ও জীবনের গল্পগুলোকে ভাগ নেয়ার সুযোগ করে দিতে চাই। কারন তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে ব্লকচেইন সবার মাঝে একটি সেতু বন্ধন তৈরী করতে সক্ষম হয়েছে। আমরা এই সুযোগটির পূর্ণ ব্যবহার এবং বাঙালি কমিউনিটির একটি নির্দিষ্ট অবস্থান নিশ্চিত করার মাধ্যমে পারস্পরিক সম্পর্ক এবং অভিজ্ঞতা বিনিময় সহজসাধ্য করতে চাই।

হ্যাংআউট-২১

কমিউনিটির এ্যাডমিন @shuvo35 ভাই সঠিক সময়ে হ্যাংআউট শুরু করেন। শুরুতেই তিনি সবাইকে স্বাগতম জানান এবং নিজের উত্তেজনার অনুভূতি শেয়ার করেন। কারন বৃহস্পতিবার আসলে অনুভূতিগুলো পাল্টে যায় এবং একটা টানটান উত্তেজনা বিড়াজ করে মনের মাঝে। হ্যাংআউট শুরুর আগ পর্যন্ত উত্তেজনা বাড়তে থাকে।

এরপর শুভ ভাই উপস্থিত সকলের উদ্দেশ্যে কমিউনিটি তথা আমার বাংলা ব্লগ নিয়ে কিছু কথা শেয়ার করেন। এবিবি-স্কুলসহ অন্যান্য বিষয়ে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন এবং যথা নিয়মে সবাইকে কমিউনিটিতে কাজ করার আহবান জানান। যদিও আমরা যথেষ্ট চেষ্টা করে যাচ্ছি সকলের কাংখিত উন্নতির জন্য।

এরপর আমি হাফিজ উল্লাহ পূর্বের ন্যায় কিছু কথা বলি, যা সবাই শুনে এবং পরবর্তীতে আগের নিয়মে ভুলে যান। আসলে আমরা নতুনদের ব্যাপারে যেমন সতর্ক ঠিক তেমনি পুরাতন মানে সিনিয়রদের নিয়েও চিন্তা করি। সবাইকে কাংখিত অবস্থানে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করি, যখনই প্রয়োজন তাদের গাইড করার চেষ্ট করি কিন্তু অনাকাংখিতভাবে নতুনরা যতটা সুন্দরভাবে কাজ করার চেষ্টা করছেন, পুরাতন মানে সিনিরয়রা ঠিক ততোটাই ফাঁকি দেয়ার চেষ্টা করছেন। বিশেষ করে এনগেজমেন্ট করার ব্যাপারে তাদের অবস্থান মোটেও সন্তোষজনক না। তাই এই বিষয়ে সঠিকভাবে এনগেজমেন্ট বৃদ্ধি করার বিষয়ে অনুরোধ করি। এরপর সেরা ইউজার হিসেবে @razuan12 এবং @tania69 কে পাঁচ স্টিম করে পুরস্কৃত করা হয়।

Untitled-2021.png

কমিউনিটির এ্যাডমিন @winkles ভাই কথা বলেন এরপর, শুরুতেই তিনি তার অধীনে থাকা এ্যাকটিভ ইউজারদের নিয়ে তার অনুভূতি প্রকাশ করেন। তারপর নতুনদের উদ্দেশ্যে বলেন এবিবি-স্কুলের ক্লাশগুলোতে আরো বেশী মনোযোগী হতে হবে এবং এ বিষয়ে কমিউনিটিতে প্রকাশিত হওয়া পোষ্টগুলো ভালোভাবে পড়তে হবে, তা না হলে এ্যাকটিভ/সুপার এ্যাকটিভ তালিকায় আসতে পারবে না কেউ। এরপর এ্যাকটিভ তালিকায় থাকা ইউজারদের উদ্দেশ্যে বলেন, যারা আমার বাংলা ব্লগে সপ্তাহে তিনটি পোষ্ট করেন কিন্তু অন্যান্য কমিউনিটিতে পোষ্ট করেন বাকী দিনগুলোতে, তাদের সাপোর্ট দেয়া হবে না। সপ্তাহে কমপক্ষে ছয়টি পোষ্ট শেয়ার করতে হবে তবে রিপিট পোষ্ট করা যাবে না। এ বিষয়ে সতর্ক করেন, যদি কারো ক্ষেত্রে এটা ধরা পরে তাহলে প্রথমে সতর্ক করা হবে কিন্তু পরবর্তীতে ঠিক না হলে ব্যান করা হবে কমিউনিটি হতে।

কমিউনিটির এ্যাডমিন এবং কোয়ালিটি কন্ট্রোলার @rex-sumon​ সুমন ভাই কথা বলেন তারপর, শুরুতেই তার অধীনে যারা আছেন তাদের কাজের কোয়ালিটি নিয়ে তার অনুভূতি শেয়ার করেন। তার অধীনে থাকা ১৯ জনের মাঝে ৭/৮ জন খুবই ভালো মানের কাজ করছেন। এছাড়া নতুনদের নিয়ে বলেন, যারা এবিবি-স্কুলের ক্লাস করছেন তাদের অবস্থা বেশ ভালো উন্নত হচ্ছে। তাই সিনিয়রদের আরো ভালো কাজ করার চেষ্টা করতে হবে তা না হলে নতুনদের সাথে পারবেন না। একটা বিষয় মনে রাখতে হবে নিয়মিত সাপোর্ট পাওয়া মানে এই না যে, ভবিষ্যতেও এই রকম সাপোর্ট পাবে। কারন কাজের কোয়ালিটি ধরে রাখতে না পারলে সাপোর্ট নিশ্চিত হবে না।

এরপর পাওয়ার আপ কনটেষ্ট নিয়ে কথা বলেন। এবারের পাওয়ার আপ কনটেষ্টে বেশ ভালো অংশগ্রহন ছিলো মোট অংশগ্রহণ ছিলো ৩৬ জন এবং পাওয়ার বৃদ্ধি হয়েছে ৩২৩৬০০ স্টিম। যদিও সবচেয়ে বেশী পাওয়ার আপ করেন আমাদের কমিউনিটির প্রতিষ্ঠাতা এ্যাডমিন, তথাপিও অন্যদের পাওয়ার আপও বেশ ভালো ছিলো। পাওয়ার আপ মানেই নিজের শক্তি বৃদ্ধি করা, যে শক্তি দিয়ে নিজেকে টিকিয়ে রাখাটা সহজ হবে। কারন কোন কারনে যদি কমিউনিটি হতে সাপোর্ট পাওয়া না যায় তাহরে নিজের শক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে ভিন্নভাবে সাপোর্ট পাওয়ার পথ তৈরী করা যাবে। এরপর বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়। তবে প্রতিযোগিতাটি চলমান থাকবে এবং প্রতি সপ্তাহে বিজয়ী নির্বাচন করা হবে। তবে দুটি নিয়মের পরিবর্তন আনা হয়েছে, যারা অংশগ্রহণ করবেন তাদের পাওয়ার কমপক্ষে ৫০ স্টিম থাকতে হবে এবং সবনিন্ম ৫০ স্টিম পাওয়ার আপ করতে হবে। আর একটা বিষয় নিশ্চিত করেন যে, এই প্রতিযোগিতাটি টার্গেট ডিসেম্বর এর অংশ।

Untitled-2022.png

এরপর কমিউনিটির এ্যাডমিন @moh.arif আরিফ ভাই কথা বলেন, শুরুতেই কমিউনিটিতে নতুন জয়েন হওয়া সদস্যদের ব্যাপারে বলেন। নতুন সদস্য আসছে এবং আরো আসতে থাকবে, ধীরে ধীরে এর গতি আরো বৃদ্ধি পাবে। তবে নতুনদের মাঝে অনেক ভালো ইউজার রয়েছে এবং সবাই রিয়েল। তাছাড়া এবিবি-স্কুলের কারনে অনেকেই আমার বাংলা ব্লগে জয়েন হওয়ার আগ্রহ দেখাচ্ছে। কারন পূর্বে নতুনরা খুব বেশী সাপোর্ট পেতেন না কিন্তু এখন যারা এবিবি-স্কুলের মাধ্যমে লেভেলিং পাশ করছেন তাদের সাপোর্ট পাওয়াটা অনেক সহজ হয়েছে। এরপর আরিফ ভাই তার অধীনে আসা এ্যাকটিভ ইউজারদের তথ্য উপস্থাপন করেন এবং প্রয়োজনীয় পরামর্শ শেয়ার করেন।

কমিউনিটির এ্যাডমিন @shuvo35 ভাই এরপর কথা বলেন, গত একমাস যাবত যারা তার অধীনে ছিলেন, তাদের নিয়ে মান উন্নয়নে যথেষ্ট চেষ্টা করা হয়েছে, প্রয়োজন অনুযায়ী নানা পরাপর্শ দেয়া হয়েছে এবং ভালো পোষ্টগুলোতে সাপোর্ট নিশ্চিত করা হয়েছিলো। অনেকেই নিজেকে পরিবর্তন করেছেন এবং নির্দিষ্ট বিষয়ে বেশ ভালো উন্নতি করেছেন। যার কারনে পোষ্টের কোয়ালিটি আগের থেকে অনেক ভালো হয়েছে। তথাপিও অনেকের অবস্থা এখনো কিছুটা দুর্বল রয়ে গেছে, তাদেরকে পরামর্শ অনুযায়ী ভালো কিছু করার চেষ্টা করতে বলেন। এরপর তিনি আশাবাদ নিজের অবস্থান উন্নত করার ব্যাপারে সবাই আরো বেশী যত্নশীল হবেন।

এরপর কমিউনিটির এ্যাডমিন @moh.arif আরিফ ভাই ফিরে আসেন আবার এবং সবচেয়ে আকর্ষনীয় সেগমেন্ট কুইজ পরিচালনা করেন, তাকে সহযোগিতা করেন @rex-sumon​ সুমন ভাই । প্রতিটি কুইজ এর জন্য সময় ছিলো ৩০ সেকেন্ড, যারা সঠিক উত্তর দেয়ার মাধ্যমে বিজয়ী হয়েছেন তাদেরকে আরিফ ভাইয়ের পক্ষ হতে পুরস্কৃত করা হয়। যদিও সবার শেষে কমিউনিটির প্রতিষ্ঠাতা এ্যাডমিন @rme দাদার পক্ষ হতে একটি প্রশ্ন করা হয় এবং বিজয়ীকে পুরস্কৃত করা হয়।

Untitled-2023.png

এরপর কমিউনিটির মডারেটরগণ কথা বলেন, প্রথমে @kingporos ভাই কমিউনিটি নিয়ে বলেন গত সপ্তাহ পর্যন্ত সবকিছু ঠিক ছিলো কিন্তু এই সপ্তাহে একটু দুর্বল মনে হচ্ছে যদিও আমাদের কমিউনিটির প্রত্যেকটি ব্লগার যথেষ্ট ভালো কাজ করার চেষ্টা করেন, সব সময় তাদের সেরাটা ভাগ করে নেয়ার চেষ্টা করেন। তবে এই চেষ্টাটা সব সময় ধরে রাখা উচিত বলে তিনি মন্তব্য করেন, না হলে নতুনরা এসে সে জায়গাটা দখল করে নিবে। এ্যাকটিভ সদস্যরা বানানের ক্ষেত্রে এখন ভালো করছেন কিন্তু নতুনরা অনেকেই প্রচুর বানান ভুল করছেন। তাই নতুনদের বানানের ভুলের ক্ষেত্রে আরো বেশী যত্নশীল হওয়ার পরামর্শ দেন। এই প্রসঙ্গে কমিউনিটির প্রতিষ্ঠাতা এ্যাডমিন @rme দাদা সবাইকে বানান ভুলের বিষয়ে সচেতন হওয়ার আহবান জানান, কারন কিছু কিছু বানান ভুল পুরো অর্থটিকে পরিবর্তন করে দেয়। তাই বানান ভুলের বিষয়ে সতর্ক হতে হবে, অন্যত্থায় এটা কোনভাবেই মেনে নেয়া হবে না।

তারপর @rupok ভাই কথা বলেন, এবিবি-স্কুলে যারা জয়েন হচ্ছেন এবং ভেরিফাই হওয়ার জন্য পোষ্ট করছেন তাদের পোষ্টের ট্যাগের বিষয়ে তিনি কথা বলেন এবং সবাইকে সঠিক ট্যাগগুলো ব্যবহার করার পরামর্শ দেন। তবে এ্যাকটিভ তালিকার অনেক পুরাতন ইউজারও আছেন, যাদের নানা বিষয়ে দুর্বলতা রয়েছে, তাদেরকে এবিবি-স্কুলের ক্লাসে উপস্থিত থাকার পরামর্শ দেন।

এরপর @alsarzilsiam ভাই বলেন, বানান ভুলের প্রসঙ্গটি তিনিও উপস্থাপন করেন। বিশেষ করে নতুনদের মাঝে এই প্রবণতাটা একটু বেশী, তাদের গাইড করা হলে সব ঠিক হয়ে যাবে বলে তিনি প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন। কিন্তু কিছু কিছু নতুন ইউজার রয়েছে তাদের পরামর্শ দেয়ার পরও সে বিষয়ে কর্ণপাত করেন না, এটা দুঃখজনক। তারা যদি এবিবি-স্কুলের ক্লাসগুলোতে নিয়মিত উপস্থিত থাকেন তাহলে তাদের দুর্বলতাগুলো দূর করা সহজ হবে।

Untitled-2024.png

এরপর কমিউনিটির শিক্ষানবিশ মডারেটরগণ কথা বলেন, প্রথমে @nusuranur নুর আপু বলেন, মডারেটর রুলটি তার নিকট বেশ অবাকের ছিলো, তিনি নোটিফিকেশন চেক করার সময় বিষয়টি দেখতে পান। নতুনদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন অনেকেই ভুল করছেন এবং ভুল ধরিয়ে দেয়ার পর ধন্যবাদ দিচ্ছেন কিন্তু সেই ভুলটি হতে ফিরে আসছেন না কিংবা পোষ্ট এডিট করার মাধ্যমে সেটার সংশোধন করার আগ্রহ দেখাচ্ছেন না। এছাড়াও মেয়েদের উদ্দেশ্যে বলেন, কমিউনিটিতে মেয়েদের সংখ্যা বেশ বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং সবাই ভালো কাজ করছেন, যদিও অনেকেই মেয়েদের ভালো অবস্থান ভালো চোখে দেখেন না, তথাপিও তিনি মেয়েদের নিয়ে কাজ করার ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেন। কোন বিষয়ে কেউ যদি নিজেকে আনসেফ মনে করেন, সাথে সাথে বিষয়টি নুর আপুর সাথে শেয়ার করার পরামর্শ দেন।

এরপর @brishti আপু কথা বলেন, তিনিও বিষয়টি নিয়ে শকড হয়েছেন তবে নিজের দায়িত্ব পালনে যথাযথভাবে চেষ্টা করে যাবেন বলে সবাইকে আশ্বস্ত করেন। নতুনদের অনেকেই বানান ভুল করছেন, অনেকের বানান শুদ্ধ করার চেষ্টা করেছেন তিনি এবং এটা অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন। এছাড়া তিনিও মেয়েদের যে কোন বিষয়ে পাশে থাকবেন বলে নিজের অবস্থার কথা জানান।

তারপর কথা বলেন @ayrinbd আপু, তিনি আবারও দাদাকে নিশ্চয়তা দেন নিজের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করার ব্যাপারে এবং তার কাজের ব্যাপারে পরিবারের সকলের সমর্থন রয়েছে। নিজের দায়িত্ব সম্পর্কে ভালোভাবে পরিস্কার ধারনা নিয়ে সকলের সাথে মিলেমিশে কাজ করার আশা ব্যক্ত করেন।

Untitled-2025.png

‘আমার বাংলা ব্লগ’ কমিউনিটির প্রতিষ্ঠাতা এ্যাডমিন @rme দাদা কথা বলেন এরপর, শুরুতেই তিনি ইলিশ কনটেস্ট এর প্রাইজ নিয়ে বলেন। ইতিমধ্যে প্রথমস্থান অধিকার করার প্রাইজ দেয়া হয়েগেছে এবং বাকীদের ৫০% প্রাইজ এখনো বাকী রয়েছে। আগামী সোমবার হতে বাকী প্রাইজ দেয়া শুরু হবে লাজুক খ্যাঁকের কিউরেশন এর মাধ্যমে। সুতরাং এটা নিয়ে চিন্তিত হওয়ার কিছু নেই।

এরপর শুভ ভাই কথা বলেন, চলমান প্রতিযোগিতা নিয়ে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন, প্রতিযোগিতায় কাংখিত অংশগ্রহন না আসায় আরো এক সপ্তাহ অংশগ্রহনের সময় বৃদ্ধি করার ঘোষণা দেন এবং সবাই অংশগ্রহণ করবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তারপর এবিবি-চ্যারিটি নিয়ে কথা বলেন, সকলের অংশগ্রহণের সুন্দর একটা ফান্ড তৈরী করা সম্ভব হবে, যা পরবর্তীতে আমাদের উপকারে আসবে। তাই সবাইকে প্রতি সপ্তাহে সামান্য হলেও এবিবি-চ্যারিটি ফান্ডে অংশগ্রহণের আহবান জানান। এরপর কথা বরেন হিরোইজম প্রজেক্ট নিয়ে। হিরোইজম আপনাদের প্রজেক্ট তাই সবাইকে ডেলিগেশন করার মাধ্যমে এই প্রজেক্টের সাথে সংযুক্ত হওয়ার ব্যাপারে উৎসাহিত করার চেষ্টা করেন। হিরোইজম প্রজেক্ট নিয়ে আরিফ ভাইও কথা বলেন এবং হিরোইজম এর ভোট তাদের জন্য কতটা সুখকর হবে সেটা উপস্থাপন করার চেষ্টা করেন।

Untitled-2026.png

এরপর শুভ ভাই আগামী সপ্তাহের জন্য কমিউনিটির সুপার এ্যাকটিভ ইউজারদের নাম প্রকাশ করেন। একে একে সবার নাম উপস্থাপন করেন, যারা সুপার এ্যাকটিভ তালিকায় আসতে পারেন নাই তাদের আরো ভালো কিছু করার চেষ্টা অব্যাহত রাখতে বলেন। তারপর শুরু করা হয় এন্টারনেইনমেন্ট পর্বঃ প্রথমে @santa14 আপু তার মিষ্টি কণ্ঠে গান শুনান, তারপর @alomgirkabir50 বেশ আগ্রহ নিয়ে গানের কিছু অংশ গেয়ে শুনান।

এরপর শুরু করা হয় প্রশ্নোত্তর পর্বঃ নিজেদের যে কোন বিষয়ের কৌতুহল দূর করার দারুণ সুযোগ এটি। এই পর্বে @sagor1233, @isha.ish, @rita135, @engrsayful, @shuvo2030, @shopon700সহ অনেকেই প্রশ্ন এবং নিজেদের অনুভূতি প্রকাশ করেন।

ধন্যবাদ সবাইকে।

@hafizullah


Community TEAM

@rme ADMIN ✠ Founder 🔯
@blacks ADMIN Executive Admin ♛
@winkles ADMIN Admin India Region 🇮🇳 ✨
@rex-sumon ADMIN Admin Quality Controller ✨
@hafizullah ADMIN Admin Bangladesh Region 🇧🇩 ✨
@shuvo35 ADMIN Admin Bangladesh Region 🇧🇩 ✨
@moh.arif ADMIN Admin Bangladesh Region 🇧🇩 ✨
@rupok MOD Community Moderator 🇧🇩 ✨
@alsarzilsiam MOD Community Moderator 🇧🇩 ✨
@kingporos MOD Community Moderator 🇮🇳 ✨
@nusuranur MOD Community Apprentice Mod♀ 🇧🇩
@tangera MOD Community Apprentice Mod♀
@brishti MOD Community Apprentice Mod♀ 🇧🇩
@shy-fox MOD Extreme Curator 🐺
@abb-school MOD Steem School ✍
@endplagiarism04 MOD Steemit Watcher 🔍
@amarbanglablog MOD Primary Curator ♛♝
@royalmacro MOD Secondary Curator ♝
@curators MOD Secondary Curator ♝
@photoman MOD Secondary Curator ♝

bangla.png


Support @heroism Initiative by Delegating your Steem Power and get Amazing Support

250 SP500 SP1000 SP2000 SP5000 SP

Heroism_3rd.png

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
Sort Order:  

ভাইয়া আপনার এই হ্যাং আউট এর পোষ্ট টা আমার কাছে খুব ভালো লাগে। যদিও আমি হ্যাংআউটে থাকি তারপরও আপনার পোস্ট আমি পড়ি । আপনি একদম হুবহু যা হয় তাই লেখেন। একটি বিষয়ও বাদ যায়না আপনার লেখাতে। যা দেখতে খুবই ভালো লাগে। যদি কেউ হ্যাংআউট মিস করে ফেলে তাহলে সমস্যা নেই আপনার এই পোস্টটি পড়লে সে ওই হ্যাংআউটের ওই মুহূর্তে চলে যাবে। ধন্যবাদ ভাইয়া আপনাকে এভাবে আমাদের সাথে থাকবেন।

আমার বাংলা ব্লগ কমিউনিটি তে অনুপ্রেরণার আরেক নাম হাফিজ ভাই। প্রতি সপ্তাহে হ্যাংআউট এর কার্যকলাপ গুলো অনেক সুন্দর ভাবে তুলে ধরে থাকেন। আমি একটি গানের কিছু অংশ গিয়ে শুনেছিলাম তবে কোনদিন এভাবে গান গাওয়া হয়নি আমার অনুভূতি ছিল খুবই উত্তেজনা পূর্ণ। তবে আমি উপস্থাপনা কাজে। আমাদের এলাকার একটি স্কুলের অনুষ্ঠানে খুব সুন্দরভাবে উপস্থাপন করেছিলেন। অনেক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছিলাম বিতর্ক প্রতিযোগিতা এবং অন্যান্য যত প্রতিযোগিতা ছিল। আমার গান গাওয়ার সুর খুব একটা ভালো নয় তাই গান গাওয়ার প্রতিযোগিতা এবং কবিতা আবৃত্তি এসকল বিষয় অংশগ্রহণ করতে পারিনি। সব মিলিয়ে হ্যাংআউট খুবই মজার এবং শিক্ষনীয় একটি দিন। ধন্যবাদ প্রিয় হাফিজ ভাই।

হ্যা, এটা ঠিক প্রথমবার হিসেবে আপনি কিছুটা নার্ভাস ছিলেন, পরবর্তীতে ঠিক হয়ে যাবে।

আমার বাংলা ব্লগ’-সাপ্তাহিক হ্যাংআউট রিপোর্ট-২১ বরাবরের মতোই নিখুঁতভাবে প্রতিবেদনটি তৈরি করেছেন।তবে এবার হ্যাংআউটে নতুন নারী মডারেটর পেয়ে আমি খুবই আনন্দিত।এভাবেই পূর্ণাঙ্গ সমৃদ্ধশীল হবে আমার বাংলা ব্লগ প্রত্যাশা রেখে গেলাম♥♥

হুম, আমার বাংলা ব্লগ এখন সব দিক হতে পরিপূর্ণ। ধন্যবাদ

খুবই আনন্দ হচ্ছে ভেবে আমাদের কমিউনিটি এখন স্টিম প্লাটফর্মে সব কমিউনিটির মধ্যে তৃতীয় অবস্থানে আছে। এই ক্রেডিট কিন্তু সম্পূর্ণ আপনাদের এবং দাদার। দাদার সহযোগিতা এবং আপনাদের মতো গাইড না পেলে আমরা এতো ভালো করতে পারতাম না। এবং আমাদের এই সফলতার পেছনে রয়েছে কিন্তু হ‍্যাংআউটের অবদান। প্রতি বৃহস্পতিবার আপনারা আপনাদের গুরুত্বপূর্ণ সময় আমাদের পেছনে ব‍্যয় করেন। এটা খুবই ভালো বিষয়।

অন‍্যান‍্য সপ্তাহের মতো এই সপ্তাহেও যথাসময়ে আমাদের হ‍্যাংআউট শুরু হয়। এরপর একে একে সকল কার্যক্রম চলতে থাকে। যাইহোক শিক্ষা কুইজ বিনোদনের মধ্য দিয়ে বেশ ভালো সময় অতিবাহিত করেছি সবাই।

এটা সত্য বলেছেন, আমার বাংলা ব্লগ সকল দিক হতে নাম্বার ওয়ান হবে।

💖💖

ভাইয়া আপনাকে সাধুবাদ জানাই বরাবরের মতোই খুবই সুন্দর করে সাপ্তাহিক হ্যাংআউট প্রতিবেদন আমাদের মাঝে পেশ করেছেন। আজকে একটু নতুনত্ব এসেছে আমাদের কমিউনিটির হ্যাংআউটে তা আমাকে খুবই আনন্দিত করেছে। তা হলো নারীদের মর্যাদা বৃদ্ধি করে আমাদের পরিবারে নতুন করে তিনজন নারী মডারেটর যুক্ত হয়েছে। তা খুবই আনন্দ কর আমাদের সবার জন্য।শুভকামনা রইল ভাই আপনার জন্য।

জ্বী ভাই, আমার বাংলা ব্লগ এখন সব দিক হতে পূর্ণ। ধন্যবাদ

আমাদের কমিউনিটি দিন দিন শীর্ষে এগিয়ে যাচ্ছে। কিছুদিন আগে ব্ল্যাকস দাদা দেখালেন আমাদের কমিউনিটি বর্তমানে তিন নম্বর পজিশনে রয়েছে ।যেটি আমাদের জন্য অনেক বড় পাওয়া। আমার বাংলা ব্লগ কমিটিতে কাজ করে আসলেই আমি নিজেকে গর্ববোধ মনে করি কেননা একমাত্র বাঙালিরাই রয়েছে যারা নিজের মাতৃভাষার জন্য প্রাণ দিয়েছেন এবং এই সম্মানিত ভাষাভাষীদের মাঝে এবং আমার নিজের মাতৃভাষা বাংলা পেয়ে আমি আসলেই অনেক কৃতজ্ঞ। গত হ্যাংআউটে আমি উপস্থিত ছিলাম এবং আলোচনা গুলো অনেক মনোযোগ দিয়ে শুনেছি যেখান থেকে অনেক অভিজ্ঞতা অর্জন করেছি ।ধন্যবাদ ভাইয়া আপনাকে এত সুন্দর একটি রিপোর্ট আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য।

তবে আমাদের প্রত্যাশা প্রথম স্থান অধিকার করা। ধন্যবাদ

আমার বাংলা ব্লগ হ্যাংআউট গুলো আমার খুবই ভালো লাগে। তাই আমি প্রতি বৃহস্পতিবার হ্যাংআউট এর জন্য অপেক্ষা করি। পুরোটা সময় আমি আনন্দের সাথে পালন করি। প্রতিটা সময় অনেক ভালো লাগে। সময়টার লম্বা হলেও খুবই আনন্দের সাথে এই সময়টা পার করি। যার কারণে সময়টা কোথা দিয়ে পার হয়ে যায় বোঝা যায় না। এখান থেকে আমরা অনেক কিছু শিখতে পেরেছি, কারণ নতুন নতুন সব জ্ঞান এবং সবার মতামতেই মাধ্যমে প্রকাশ করা হয়। আমার খুবই ভালো লেগেছে আপনি হ্যাংআউট এর বিষয় গুলো খুবই সুন্দরভাবে উপস্থাপন করেছেন। আপনার জন্য অনেক দোয়া রইল।

ধন্যবাদ আপনার সুন্দর অনুভূতি প্রকাশ করার জন্য।

প্রথমে ভাই আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ। হ্যান্ডআউট এর পুরো বিষয়টি এমনভাবে উপস্থাপন করেছেন যে পোস্টটি পড়ার সময় মনে হচ্ছে আমি যেন বাস্তব হ্যাংআউটে অবস্থান করছি।

ইনশাআল্লাহ হ্যাংআঊট ২১ শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ছিলাম। আমার কাছে আসলেই হ্যাংআউটে সবচেয়ে ভালো লাগে কুইজ অংশটা। খুব কৌতুহল দিয়ে বসে থাকি কখন সেই কুইজ অনুষ্ঠানটা হবে।

কাল দুইটা প্রশ্নের উত্তর পারতাম কিন্তু নেটওয়ার্কের খারাপের জন্য একটা প্রশ্নের উত্তর দিয়েছি।

খুবই ভালো লাগতেছে যাইহোক আমি জয়ী হয়ে ছিলাম।

আসলে শুভ ভাইয়ের উপস্থাপনা খুবই ভালো হয়,

এক এক করে এডমিন ভাইরা আরিফ ভাই, সুমন ভাই, রুপক ভাই,সিয়াম ভাই,হফিজুল্লাহ ভাই,আমাদের প্রিয় দাদা৷ ব্লাকস দাদা, এবং নতুন এডমিন নুর আপু, বৃষ্টি আপু, তানজিরা আপু কথা বললো।

সবাই নতুনদের উদ্দেশ্যে অনেক কথা বলল তারা কিভাবে ভালো পোস্ট করবে।

সব মিলিয়ে সুন্দর একটা হ্যাংআউট ছিল।

💓💓💓💓💓

একটা জিনিস আমি বলতে চাই খুবই ভালো লাগে যারা একদম নতুন তাদের নিয়ে আপনি খুবই সুন্দর কথা তুলে ধরেন। তাদের গাইড করেন।তারা কিভাবে সামনে এগিয়ে যাবে। তাদের এঙ্গেজমেন্ট কিভাবে বাড়াবে আর আসলেই আমরা যারা পুরাতন ইউজার তারা আসলেই ফাকি দেওয়ার চেষ্টা করছি । এইটা আমাদের আরো নজর দেওয়া দরকার আসলে আমি আপনার পক্ষ থেকে সেরা হতে পেরেছে খুবই ধন্য। আমি ধরে রাখার চেষ্টা করব। বৃহস্পতিবার মানে টানটান উত্তেজনা। সবথেকে ভালো লাগে কুইজ এবং সবথেকে উত্তেজনা কাজ করে সুপার একটিভ লিস্ট। সকল মডারেটর এডমিন প্যানেলের সুন্দর মন্তব্য আর আরিফ ভাইয়ের বিশ্লেষণ শুনে মুগ্ধ হয়ে যায় এবং এককথায় আমাদের বিনোদন দেয়ার জন্য গান গায় অনেক জন।সত্যিই একদম পরিমিতভাবে সুন্দর একটি আমাদের পরিবার আমার বাংলা ব্লগ । আপনি সকলের মতামত খুব সুন্দরভাবে গুছিয়ে লিখেছেন ভাইয়া

যাদের নেটওয়ার্ক অথবা অন্যান্য যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে হেং আউট এ উপস্থিত থাকতে পারেন না কিংবা হেংআউট এর বিষয়বস্তু বুঝতে পারেন না তাদের জন্য এক দৃষ্টান্তমূলক এবং আলোকবর্তিকা হলো @hafizullah . ভাই।

যার রিপোর্টের মাধ্যমে পুরো হেংআউট এর বিষয়বস্তু পুনরায় পুনর্নির্মাণ করা সম্ভব।।

রিপোর্ট উপস্থাপন করার জন্য ধন্যবাদ দিয়ে ছোট করার কোন প্রয়োজনে আসে না। শুধু অবিরাম ভালোবাসা রইলো এতোটুকুই বলতে চাই।

এই সাপ্তাহেও আমি প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত ছিলাম খুব ভালো লেগেছে।
সত্যিই এই দিনটার জন্য আমরা অপেক্ষা করে থাকি।খুব ভালো লাগে সবার সাথে কথা সাথে কথা বলতে।

এভাবেই একদিন এগিয়ে যাবে অনেক দূর অনেক দুআ ও ভালোবাসা আমার বাংলা ব্লগের জন্য।
সবার আগে অনেক দুআ ও শুভকামনা আমাদের প্রিয় দাদার জন্যে।

রিপোর্ট টি আপনি সুন্দর ভাবেই তৈরী করেন প্রতি সপ্তাহে। তবে ছবি আকাঁর বিষয়ে হাতের ছবি থাকতে হবে এটি একটি গুরুত্বপূর্ন বিষয় যেটি মনে হচ্ছে বাদ পড়েছে। সেক্ষেত্রে রুপক ভাই ভিডিও করার ব্যপার টা বলেছেন। মোটামুটি অনেকেই এই বিষয়ে কথা বলেন। আমি আপনার লেখা সবটুকু পড়ার চেষ্টা করেছি যাই হোক আমার ও ভুল হতে পারে। ভাল থাকবেন।

হাফিজ ভাইয়া আপনাকে ধন্যবাদ দিয়ে সত্যি শেষ করা যাবে না।গত কালের হ্যাংয়াউটে আমি খুব মর্মান্তিক কারনে উপস্থিত থাকতে পারিনি।তাই হ্যাংয়াউট এর কোনো কিছুই জানতে পারি নি।

তবে হতাস হয়নি কারন আমাদের হাফিজ ভাইয়া আছে সে পুরো হ্যাংয়াউট টা খুব সুন্দর নির্ভুল ভাবে আমাদের মাঝে তুলে ধরেন।তাই বলে আমি বলবো না ইচ্ছাকৃত ভাবে আপনারা কেউ হ্যাংয়াউট মিস করেন।

ভাইয়া আমার জন্য অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ ছিলো পোস্টা। পুরো হ্যাংয়াউট টা পরতে পারলাম।অসংখ্য ধন্যবাদ ভাইয়া।দোয়া রইলো।

চেষ্টা করেছি পুরো বিষয়টি উপস্থাপন করার জন্য। ধন্যবাদ

ভালবাসা নিবেন ভাইয়া😍

বরাবরের মতই, হ্যাংআউট উপস্থাপন সুন্দর থাকলেও আমার নামটি এখানে দেখতে পেলামনা। তাতেই আমি অনেক আনন্দিত।

হ্যাংগ আউটে নিজের নামটা দেখতে পেলে কেনো জানি আমার আলাদা রকমের একটা শান্তি লাগে। কেনো যে শান্তি লাগে তা জানিনা। শুধু এখন না সব সময় ই আমার এই ফিলিংটা কাজ করে। তবে আপনার কাজ দেখে ভাইয়া আমি তো একেবারে মুগ্ধ হয়ে গেলাম। সবকিছু কি করে এত সুন্দর ভাবে গুছিয়ে লিখতে পারেন তা আমার মাথায় আসে না। আপনি সত্যিই খুব দারুণ পরিশ্রমী একজন মানুষ। তা না হলে এত ডিটেইলসে লিখা কোনদিনও সম্ভব না, খুব সুন্দর হয়েছে রিপোর্টটি।

ভাইয়া,আপনার প্রতি সবসময় অনেক ভালোবাসা রইল, প্রতি সপ্তাহের হ্যাংআউটের সম্পূর্ণ তথ্য আপনি খুব সুন্দরভাবে উপস্থাপন করেন, আর তার সাথে মূল্যবান কিছু জিনিস আমাদের মাঝে শেয়ার করেন। আপনার এই মহান কাজটি আমাদের সবাইকে অনেক প্রেরণা দেয়। হ্যাংআউটে থাকতে পেরে খুব ভালো লেগেছিল৷ অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া আপনাকে।

প্রতি বৃহস্পতিবার মানেই এক ভালো লাগার দিন। এই ভালোলাগা থেকেই সেই শুভক্ষণের অপেক্ষায় থাকি কখন সেই মুহূর্ত আসবে।সাপ্তাহিক হ্যাংআউট রিপোর্ট-২১ পড়ে মনে হচ্ছে যেন সব কিছুর পুনরাবৃত্তি হচ্ছে। প্রতিটি কথা আপনি স্পষ্ট ভাবে এবং গুছিয়ে আমাদের সাথে শেয়ার করেছেন। এই প্রতিবেদনটি খুবই গোছালো এবং তথ্যবহুল একটি প্রতিবেদন। ধন্যবাদ আপনাকে দারুন ভাবে এই প্রতিবেদনটি আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য।

সারা সপ্তাহ ঘুরে কখন বৃহস্পতিবার আসবেএই অপেক্ষায় থাকি ।কারন এই দিন সবাইকে এক সাথে পাওয়া যায় ।কথা শুনা যায় সব এডমিন ভাইদের মোডেটর ভাইদের ।সবার সবার সমস্যা সামনে আসে যা থেকে আমরাও শিখতে পারি ।কার কি রকম অবস্থান কেমন পোষ্ট হচ্ছে কেমন সবার এনগেজমেন্ট হচ্ছে জানা যায় ।এরপর কুইজ পর্বর তো জবাব নেই ।নতুন পুরাতনের উদ্দেশ্যে rme দাদার কথা শুনতে পাই ।সব মিলিয়ে হ্যাংআউট এতো চমৎকার হয় তা ভাষায় বুজাতে পারবোনা ।ধন্যবাদ শুভকামনা সবার জন্য যে এডমিন মোডেটর ভাইরা খুব কষ্ট ও নিখুত ভাবে অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন ।

ভাইয়া আপনার লেখা প্রতিবেদনটি পড়ে আমি মুগ্ধ হয়ে গেছি। আপনি হুবহু একদম প্রতিটি বিষয় লিখেছেন। যদি কেউ এই হ্যাংআউটে অংশগ্রহণ না করে থাকে তবুও সে এই পোস্টটি পড়ে পুরোপুরি জ্ঞান অর্জন করতে পারবে। সত্যি কথা বলতে বৃহস্পতিবার আসলেই সবার মাঝে টান টান উত্তেজনা বিরাজ করে। কখন সেই মুহূর্ত চলে আসবে এবং আমরা সবার সাথে একত্রিত হতে পারবো। অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় থাকে সবাই সেই গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তের জন্য। আমি চেষ্টা করি প্রতিটি হ্যাংআউটে অংশগ্রহণ করার। খুবই ভালো লাগে আমার সেই মুহূর্তগুলো। আনন্দ আর আনন্দ বিরাজ করে প্রতিটি মুহূর্তে। ধন্যবাদ ভাইয়া দারুন একটি পোস্ট আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য।

ভাই সত্যি অবাক হয়ে যাই আপনি এত সুন্দর করে সবকিছু কিভাবে মনে রাখবেন। এখন কিছু বললে দেখা যায় কিছুক্ষণ পর সেটা ভুলে যাই কিন্তু আপনি সম্পূর্ণ হ্যাংআউটে কোথায় কি হয়েছে কে কি বলেছে সম্পূর্ণটা খুব সুন্দর ভাবে ক্লিয়ার করে দেন আপনার এই পোষ্টের মাধ্যমে। আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ জানাই ।আপনার জন্য দোয়া রইল যাতে করে সব সময় আল্লাহ তাআলা আপনার মেধা কে এইভাবে ভালো কাজে ব্যবহার করার সুযোগ দান করেন।

আমার বাংলা ব্লগের প্রতিটি মডারেটর আমার কাছে খুবই ভালো মানুষ, তারপরও আমি সবার উপরে রাখবো হাফিজ ভাইয়া কে কারন উনার কথাবার্তা এবং পোস্টগুলো শিক্ষণীয় বিষয় আমার ব্যক্তিগতভাবে খুবই ভালো লাগে যা ভাষায় প্রকাশ করার মতো নয়। বৃহস্পতিবারের এর পুরো হ্যাংআউট প্রতিটা বিবিষয় খুঁটিনাটি যত কিছু আছে সব তিনি আবার পুনরায় আলোচনা করেন। এ বিষয়টা আমার কাছে খুবই অবাক লাগে কারণ হাফিজুল ভাইয়ের মেধা শক্তি খুবই ভালো। তাই ব্যক্তিগতভাবে হাফিজ ভাই কে একটু বেশি ভালোবাসি। ভালোবাসা অবিরাম ভাইয়া,আমাদেরকে বারবার আপনারা শেখানোর চেষ্টা করছেন। আমাদের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন। আমরা বরাবরই আপনাদের কাছে ঋণী। আপনার এত সুন্দর পোষ্টের জন্য শুভেচ্ছা রইল ভাইয়া।

এবারের হ্যাংআউট অত্যন্ত জমজমাট হয়েছে। বিভিন্ন বিষয়ে সকল মডারেটরদের উপদেশ মূলক বার্তা এবং সু পরামর্শ গুলো আমার অনেক ভালো লেগেছে। হিরোইজম এবং এ বি স্কুল এর বিষয়ের কথা গুলো অনেক সুন্দর হয়েছে।

কমিউনিটির হ্যাংআউট এর উপস্থাপনা আমার কাছে সত্যিই অনেক ভালো লাগছে। আপনারা কিছুক্ষণ কাজের কথা বলেন কিছুক্ষণ নিউ মেম্বারদের উদ্দেশ্যে গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য দেন। তারপর গান হয় তারপর বিভিন্ন কুইজ হয়। একে একে করে কমিউনিটির হাংআউট অনেক কিছু নিয়ে কথা হয়।
সকল এডমিন এবং মডারেটরদের কে শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন জানাই। বিশেষ করে দাদাকে অনেক ধন্যবাদ এত সুন্দর একটা কমিউনিটির মাধ্যমে সবাইকে একসাথে করে অনেক মজা আনন্দ সবকিছু হয় এই কমিউনিটির মাধ্যমে ।তার জন্য আবার ও ধন্যবাদ জানাই দাদাকে।

খুবই সুন্দর রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়েছে।খুবই পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে,তা শুধুই আমাদের প্রিয় হাফিজুল্লা ভাইয়ার পক্ষেই সম্ভব।সবথেকে কুইজ খেলাটি বেশি মজার হয় ও সুপার একটিভ লিস্ট প্রকাশটাও।ধন্যবাদ ভাইয়া।

মোট অংশগ্রহণ ছিলো ৩৬ জন এবং পাওয়ার বৃদ্ধি হয়েছে ৩২৩৬০০ স্টিম।

ভাইয়ের খুটিনাটি কিছু বাদ যায়না। ধন্যবাদ। আপনার নোট করা আর স্মৃতিশক্তি অনেক তীক্ষ্ণ।

সপ্তাহ জুড়ে অপেক্ষা করে থাকি এই দিনটির জন্য। খুব আগ্রহ নিয়ে সপ্তাহ কাটে। খুব সুন্দর একটি আয়োজন। বিশেষ করে কুইজ প্রতিযোগিতা। খুব ভালো লাগে।