বহুমাস পরে একটু সময় কাটালাম ছাদে।।২৪ জুন ২০২২।।

in hive-129948 •  2 months ago 

হ্যালো বন্ধুরা কেমন আছেন?আশা করি ভালো আছেন এবং সুস্থ আছেন।সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়ে আমি আজকে আমার পোস্ট লেখা শুরু করছি।আজকে আমি একটি সাধারণ ব্লগিং শ্রেণীর পোস্ট করতে চলেছি।বন্ধুরা এখন আমাদের দেশে বর্ষাকাল চলছে।কবি সাহিত্যিক দের কাছে বর্ষাকাল মানেই বছরের সেরা সময়।এই সময়টা যেন তাঁদের সৃজনশীলতা অনেক অনেক গুন বৃদ্ধি পায়।সত্যি কথা বলতে বর্ষাকাল আমার ও খুব প্রিয়।তবে সবচেয়ে প্ৰিয় হলো শীতকাল।বর্ষাকাল এ শহরে থাকলে বর্ষার সত্যিকারের মহাত্মা বোঝা যায় না।বর্ষার সঠিক আমেজ বুঝতে হলে আমাদের কে গ্রামে থাকতে হবে।আমি নিজেকে খুবই সৌভাগ্যবান মনে করি যে আমার শৈশবের বেশির ভাগ সময়টা গ্রামে কেটেছে।

IMG_20220624_181142.jpg

বেরবার্টন ডেইসি


বর্ষাকাল গ্রামে আমরা খুবই মজা ও আনন্দ করতাম।সত্যি গ্রামের সবুজ পরিবেশ আর বর্ষার প্রাণের সঞ্চার সামগ্রিক ভাবে আমাদের উৎফুল্ল করে তুলতো।এখনো মনে আছে হঠাৎ করে বর্ষা শুরু হলেই ফুটবল হাতে নেমে পড়তাম বাড়ির পাশে ফাঁকা জমিতে।যেহেতু বর্ষাকাল তাই জমিটা কিছুটা জল ও কাঁদায় মাখামাখি থাকতো।আর এর জন্য হয়তো ফুটবল খেলায় বেশি মজা হতো।বৃষ্টির ফোঁটা অবিরত গায়ে পড়ছে আর আমরা ফুটবল নিয়ে ছুটছি।সে এক অনন্য ভালোলাগা,এক দারুন অভিজ্ঞতা।

IMG_20220624_181253.jpg

IMG_20220624_181247.jpg

IMG_20220624_181242.jpg

ক্রাউন অফ থর্নস

মাঝে মাঝে নদীর কাছে মাঠে খেলতে যেতাম।সেখানে খেলতে যাওয়ার মূল আকর্ষণ ছিলো নদী।কারণ খেলতে খেলতে যখন আমাদের সারা শরীর কাঁদায় মাখামাখি হয়ে যেত অমনি আমরা সবাই ধুম ধুম করে নদীতে লাফ দিতাম।বর্ষার কারণে আমাদের শরীর কিছুটা ঠান্ডা হয়ে যেত।তাই নদীর গরম জল এ আমাদের বেশ আরাম লাগতো।সত্যি কি সুন্দর দিনগুলি ছিলো!

যে সময় জীবন থেকে চলে যায় সেই মূল্যবান সময় আর ফিরে পাওয়া যায় না।এইজন্য সময় হলো পৃথিবীর সবথেকে মূল্যবান জিনিস।আমার এক প্রিয় জন বলে থাকে যে কোনো কিছুর জন্য সুন্দর মুহূর্ত কে নষ্ট করতে হয় না।কারণ পরবর্তীতে শত চেষ্টা করেও সেই মুহূর্ত কে ফিরিয়ে আনা যায় না।
IMG_20220624_181128.jpg

হিবিকাস

IMG_20220624_181122.jpg

জেসমিন

আজও এমন একটা দিন আজও বর্ষাকাল।কিন্তু এখন বর্ষাকালে সেই বৃষ্টির দেখা আর পাই না।মনে খুব ইচ্ছে একটা বর্ষাকাল পুরো কাটিয়ে আসবো গ্রামে।আমি তো ভাবছি জীবনের শেষ দিনগুলি গ্রামেই কাটাবো।

আজকে হঠাৎ করেই বহুদিন পর ,দিন বললে ভুল হবে বহু মাস পর ছাদে উঠলাম।আমার মাথার উপর ছাদ অথচ কম করে হলেও ৬ মাসের বেশি আমি ছাদে যাইনি।ভাবতেই অবাক লাগে।আমি আসলেই খুব busy মানুষ।এটা থেকে বোঝা যায়।

তো আজকে বিকেলে ছাদে গিয়ে খুব ভালো লাগলো।ছাদে দেখলাম বৌদি ফুলের ছোট একটি বাগান করেছে।যদিও টবে তবে দেখে খুব ভালো লাগলো।গাছপালা আমার ভীষণ ভালো লাগে।তারই কয়েকটি ফোটোগ্রাফি আমি আপনাদের মাঝে ভাগ করে নিয়েছি।সবাই কে শুভেচ্ছা জানিয়ে আজকে বিদায় নিচ্ছি।IMG_20220624_181119.jpg

IMG_20220624_181114.jpg

IMG_20220624_181112.jpg

IMG_20220624_181100.jpg



|| আমার বাংলা ব্লগ-শুরু করো বাংলা দিয়ে ||

standard_Discord_Zip.gif

>>>>>|| এখানে ক্লিক করো ডিসকর্ড চ্যানেলে জয়েন করার জন্য ||<<<<<

Support @heroism Initiative by Delegating your Steem Power

250 SP500 SP1000 SP2000 SP5000 SP

Heroism_3rd.png


ধন্যবাদ।সবাই ভালো থাকবেন।

BoC- linet.png
-cover copy.png

|| Community Page | Discord Group ||


image.png

png_20211106_204814_0000.png

Beauty of Creativity. Beauty in your mind.
Take it out and let it go.
Creativity and Hard working. Discord

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
Sort Order:  

আসলে দাদা বর্ষাকালে গ্রামের খুবই মজা হয়। বন্ধুদের সাথে বৃষ্টির মধ্যে ফুটবল খেলা এবং কাঁদা মাখানো বর্ষার পানিতে গোসল এবং খেলাধুলা করতে খুবই ভালো লাগে। আপনার সেই বর্ষাকালের গ্রামের সুন্দর কাটানো মুহূর্তগুলো জানতে পেরে খুবই ভাল লাগল এবং আপনি খুবই সুন্দর সুন্দর ফুলের ফটোগ্রাফি করেছেন। এই ফটোগুলো আমার অনেক ভালো লেগেছে।

This post has been upvoted by @italygame witness curation trail


If you like our work and want to support us, please consider to approve our witness




CLICK HERE 👇

Come and visit Italy Community



আসলেই সময়টা অনেক মূল্যবান সম্পদ।সবারই ছোট বেলা কিংবা গ্রামের কাটানো মূহুর্তগুলো ভালো ছিলো।যদি ছোট বেলাকে ফিরে পাওয়া যেত, ভালো হত।আর জীবনের শেষ দিনগুলো গ্রামে কাটালে বুক ভরে নিশ্বাস নেওয়া যাবে।যাই হোক ফুল গুলো সুন্দর ছিলো।ধন্যবাদ

বর্ষাকালটা আমার কাছেও অনেক ভালো লাগে সারাদিন বৃষ্টি পড়ে এই দৃশ্যটা দেখতে অনেক ভালো লাগে। সত্যি বলেছেন বর্ষাকালে শহরের থেকে গ্রামের পরিবেশটা মনে হয় বেশি ভালো লাগে। আমি একটা জিনিস বুঝি না জল ও কাদার ভিতর কেন মানুষ ফুটবল খেলে একেবারে কাদায় মাখামাখি ওটাই মনে হয় দেখতে ভালো লাগে এই জন্য খেলে। এই জিনিশটা অনেক ভালো বলেছেন নদীর পাশে কাঁদার ভিতর খেলার মজাই আলাদা কাদায় মাখামাখি হয়ে মাঝে মাঝে নদীতে ঝাপ দিবেন এই দৃশ্যটি আমার চোখের সামনে ভাসছে ভালই লাগছে। ছয় মাস পরে ছাদে গিয়ে ছাদের দারুন দারুন কিছু ছবি শেয়ার করেছেন দাদা ।বিশেষ করে বৌদির বাগানটা আমার কাছে খুব ভালো লেগেছে প্রত্যেকটা ফুলের ছবি অনেক বেশি সুন্দর ছিল।

দাদা আসলে ছোট্টবেলার স্মৃতি গুলো খুবই মধুময় ছিল। নদীর পাড়ে খেলে নদীতে ঝাঁপ দেওয়ার মজাই আলাদা। আপনি ঠিকই বলেছেন দাদা বর্ষাকাল আসলেই প্রকৃতির সৌন্দর্য যেন দ্বিগুন বেড়ে যায়। চারদিকে মেঘাচ্ছন্ন একটি পরিবেশ ।সারাদিন আকাশের একটা গম্ভীর মুখ। অঝোরে যখন আকাশ কান্না করে বৃষ্টি ঝরায় তখন যেন তার মুখটা একটু হালকা হয়। দাদা আপনি অনেক দিন পর ছাদে খুব সুন্দর একটি সময় কাটিয়েছে। এবং বিভিন্ন ধরনের ফুলের ফটোগ্রাফি করেছেন। আমার কাছে খুবই ভালো লেগেছে ।আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ ফটোগ্রাফি গুলো আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য ।আপনার জন্য শুভেচ্ছা রইল।

ছাদে ফুলের বাগান করা আমার অনেক ভালো লাগে। বৌদি অনেক ভালো একটি কাজ করেছে। ছাদে ফুল গাছ থাকলে ছাদের সৌন্দর্য অনেকাংশে বৃদ্ধি পায়। আপনার ফটোগ্রাফি অনেক সুন্দর হয়েছে দাদা। অনেক দিন পর ছাদে গিয়ে আপনার ভালো লাগাটাই স্বাভাবিক এতো রকমের ফুল গাছে রয়েছে ছাদে। ধন্যবাদ দাদা, আমাদের সাথে শেয়ার করার জন্য।

বাহ,দাদা ছাদে তো অনেক ফুল ফুটেছে।শীতকাল আর বর্ষাকালেই সুন্দর সুন্দর ফুলগুলি বেশি দেখা যায়।শীতকালে ভ্রমণ, ভোজন আর ঘুমিয়ে মজা।আর বর্ষাকালে কাঁদায় গড়াগড়ি দিতে মজা।বৃষ্টির মধ্যে ফুটবল খেলা আবার খালে-বিলে ,উঠানে মাছ ধরার গল্প দারুণ মজার বিষয় ছিল।ফুলের ফোটোগ্রাফিগুলি দারুণ ছিল👌👌.ধন্যবাদ দাদা।

কি বলেন নিজের বাড়ির ছাদে একটানা 6 মাস যান না, শুনে সত্যিই অবাক হলাম। আর গ্রামে কাটানো শৈশবের কথা কি আর বলব, ফুটবল খেলতে গিয়ে কাদায় মাখামাখি হতাম। ইচ্ছে করে ফেলে দিতাম আরেকজনকে। তারপর সাদা গায়ে কাদা মেখে যেতাম গোসল করতে। আমি মনে করি শেষ জীবনটা গ্রামে কাটানো খুব ভালো একটা সিদ্ধান্ত। শুভকামনা রইল আপনার জন্য।

এটা দাদা ঠিক বলেছেন কবি সাহিত্যিকদের কাছে সেরা সময় হলো বর্ষাকাল, প্রকৃতির সজীবতার সাথে সাথে কবি সাহিত্যিকদের হৃদয়ও কেমন জানি সজীব হয়ে যায় এবং সুন্দর সুন্দর কাব্যিক ছন্দ আমাদের উপহার দিতে পারেন। তবে আপনার মতো আমারও শীতকাল সবচেয়ে বেশী পছন্দ।

আপনার লেখা পড়তে পড়তে আমারও শৈশবের স্মৃতি মনে পড়ে গেলো, শীতলক্ষ্যা নদীর পাড়ে শৈশব কেটেছে আমার, দারুণ হৈ চৈ করতাম, সারাদিন বসে থাকতাম মাছ ধরার জন্য, বিশেষ করে বর্ষার সময় বেলে মাছ ভালো ধরতে পারতাম চিংড়ি মাছ দিয়ে। ছাদটা বেশ দারুণ, অনেক ফুলের টপ দেখা যাচ্ছে।

Hi @blacks,
my name is @ilnegro and I voted your post using steem-fanbase.com.

Come and visit Italy Community

ঘরের ছাদের উপর তো খুব ভালো কিছু ফুলের গাছের সংগ্রহ রয়েছে। আমার নিজের বাড়িতেও ছাদের উপর ফুলের বাগান করার খুব ইচ্ছে রয়েছে। কারণ মন খারাপ থাকলে ফুলের বাগানে থাকলে মন ভালো হয়ে যায় আবার।

ভাইয়া আমারও আপনার মতই অবস্থা। অনেক মাস ছাদে যাওয়া হয় না। ছাদের ফুল গুলো সত্যিই খুব দারুণ।

আপনি যে ব্যস্ত মানুষ, এটা নিঃসন্দেহেই বোঝা যায় ভাই । এটা আর কোনোভাবেই বলে প্রকাশ করতে হবে না ।কারণ এটা আমরা ভালোভাবেই বুঝি । আর এটাও সত্য কথা যে, সময় থাকতে সময়ের কাজগুলো সঠিক সময়ে করা উচিত । বহুদিন পরে ছাদে গিয়ে বেশ ভালই সময় কাটিয়েছেন তা আপনার ছবিগুলো দেখেই বোঝা যাচ্ছে । ভালো লাগলো বেশ আপপার মুহূর্তটা । এমন সময় প্রতিনিয়ত আপনার আসুক এই কামনাই করি ।

দাদা আপনার পোস্টটি পড়ে বেশ ভালো লাগলো।আপনি আপনার শৈশবে গ্রামে খুব সুন্দর সময় কাটিয়েছেন যা এখন শহরের জীবনে এসে শুধুই স্মৃতি ।আসলে সবারই শৈশব মনে হয় বেশ আনন্দে কাটে ।ফেলে আসা দিনগুলো মনে পড়লেই ভীষণ অসহায় লাগে ।নিজের কাছে মনে হয় যেন সত্যি আবার ফিরে যেতে পারতাম। আপনি ঠিকই বলেছেন সময় মানুষের জীবনের সত্যি মূল্যবান ।আর একটি বিষয় সত্যিই অবাক লাগল ছয় মাস পরে ছাদে গিয়েছেন আমি তো ভাবতেই পারি না। আমিতো দু-তিন দিন পরপরই ছাদে যাই ।আর বৌদির ছাদ বাগান টি দেখে বেশ ভালো লাগলো ।ধন্যবাদ আপনাকে আমাদের সঙ্গে আপনার অনুভূতিগুলো শেয়ার করার জন্য।

ঠিক বলেছেন দাদা, সময় হল অনেক মূল্যবান সম্পদ। যে সময় চলে যায় সেই সময় কখনোই আর ফিরে আসে না। বৌদির বাগান টি দেখে খুবই ভালো লাগলো এবং প্রত্যেকটি ফটোগ্রাফি অসাধারণ ছিল দাদা। মাঝেমাঝে দাদা এরকম ছাদে ঘুরে আসবেন দাদা। আমার বাসার ছাদে ছোট একটি বাগান রয়েছে, প্রত্যেক বিকেলে সেই গাছগুলোতে পানি দেওয়ার উদ্দেশ্যে ছাদে যাওয়া হয়। সেই সাথে আশেপাশের পরিবেশ গুলো অনেক সুন্দর অনুভব করতে পারি।ধন্যবাদ দাদা আপনাকে।।

আপনাদের ছাদের বাগান থেকে সুন্দর কিছু ফটোগ্রাফি করে আমাদের মাঝে শেয়ার করেছেন। আমার খুবই ভালো লেগেছে আপনার এই ফটোগ্রাফি এবং মূল্যবান কথাগুলো। কথায় রয়েছে সময়ের কাজ সময়ে করা উচিত। অবশ্য আমাদের সবদিকেই টাইম দেওয়া প্রয়োজন। মানুষের মন প্রফুল্ল রাখতে প্রকৃতির মাঝে নিজেকে কিছুটা সময় বিলিয়ে দিতে হয়।

দাদা একদম সঠিক বলেছেন কবি-সাহিত্যিকদের জন্য উত্তম সময় হচ্ছে বর্ষাকাল। বর্ষাকালে নদী-নালা খাল বিল কানায় কানায় পরিপূর্ণ হয়ে যায়। এই সময় দক্ষিণা বাতাসে যেমন নদী নালার পানিতে ঢেউ খেলে, ঠিক তেমনি কবি-সাহিত্যিকদের মনেও ছন্দের ঢেউ খেলে। বর্ষার রিমঝিম শব্দে কবি হৃদয় যেন আরো চনমনে ওঠে। যাই হোক দাদা দীর্ঘ ছয় মাস পর ছাদে উঠে আপনি অনেক ভালো সময় উপভোগ করেছেন। এবং চমৎকার কিছু ফটোগ্রাফি আমাদের সাথে শেয়ার করেছেন। বিশেষ করে জেসমিন ফুলটা আমার কাছে খুব ভালো লেগেছে।
ধন্যবাদ আপনাকে।

জীবনের অর্থ / THE MEANING OF LIFE