রেসিপি// তুলতুলে মজাদার নাস্তার রেসিপি।(১০% পে-আউট 'লাজুক-খ্যাক' এর জন্য)

in hive-129948 •  last month 

স্টিমিটের সহযোদ্ধারা,

"আসসালামু আলাইকুম", আশা করি আপনারা সবাই ভালো আছেন। আমি ও আলহামদুলিল্লাহ আপনাদের দোয়ায় বেশ ভালো আছি। আজকে আমি আপনাদের মাঝে মজাদার তুলতুল নাস্তার রেসিপি নিয়ে হাজির হয়েছি। আশা করি আপনাদের কাছে এটি খুবই ভালো লাগবে।

IMG_20220819_090509.jpg

তাহলে বন্ধুরা চলুন কিভাবে আমি এই মজাদার তুলতুলে নাস্তার রেসিপি তৈরি করেছি তা আপনাদের সামনে ধাপে ধাপে উপস্থাপন করি।

প্রয়োজনীয় উপকরণ ও পরিমাণঃ

  • ময়দা: দুই/তিন কাপ
  • গরুর তরল দুধ: ২০০ মিলি
  • গুড়ো দুধ: ২ চামচ
  • চিনি: ১/২ কাপ
  • ইষ্ট: ১ চামচ
  • লবণ: পরিমাণমতো
  • সয়াবিন তেল : দুই / তিন চামচ।

IMG_20220819_085244.jpg

প্রস্তুত প্রণালীঃ

  • প্রথমে একটি পেয়ালা নিয়ে এর মধ্যে তরল দুধগুলো ঢেলে দিলাম।

IMG_20220819_085256.jpg

  • এরপর আমি গুড়ো দুধগুলো এর মধ্যে দিয়ে দিলাম। এরপর ভালো করে নেড়ে ভালোভাবে মিশিয়ে নিলাম।

IMG_20220819_085334.jpg

  • তারপর পরিমাণমতো চিনি দিয়ে দিলাম এরপর ভাল ভাবে চিনি গুলো মিশিয়ে দিলাম।

IMG_20220819_085349.jpg

  • এবার আমি এর মধ্যে ইস্ট গুলো দিয়ে দিলাম।

IMG_20220819_085359.jpg

  • তারপর ২ চামচ পরিমাণ সয়াবিন তেল এর মধ্যে দিয়ে দিলাম।

IMG_20220819_085414.jpg

  • এরপর পরিমাণ মতো লবণ দিয়ে ভালোভাবে নেড়ে ১০ থেকে ১৫ মিনিটের জন্য ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রাখলাম। এ করে সবগুলো উপকরণ ভালোভাবে মিশে যাবে।

IMG_20220819_085457.jpg

IMG_20220819_085526.jpg

  • এবার আমি এর মধ্যে ময়দা গুলো দিয়ে আস্তে আস্তে নেড়ে নেড়ে মিশিয়ে একটি ডো তৈরি করে নিলাম।

IMG_20220819_085537.jpg

IMG_20220819_085602.jpg

  • এরপর একটি ঢাকনা দিয়ে ৩০ মিনিটের মত ঢেকে রাখতে হবে তারপর দেখা যাবে ডোটি ফুলে দ্বিগুণ হয়ে গেছে।

IMG_20220819_085623.jpg

  • এবার আমি আমার হাতে পরিমাণ মতো সয়াবিন তেল নিয়ে ভালোভাবে মেখে নিলাম।

IMG_20220819_085743.jpg

IMG_20220819_085803.jpg

  • তারপর তেলে মাখানো হাত দিয়ে বড় ডোটি থেকে পরিমাণ মতো নিয়ে হাতে গোল করে ছোট ছোট করে বেশ কিছু ডো তৈরি করে নিলাম।

IMG_20220819_085819.jpg

IMG_20220819_085852.jpg

  • এবার একটি পাইপেন নিয়ে পাইপেন এর মধ্যেও পরিমাণ মতো তেল দিয়ে ভালো করে মেখে নিলাম। এরপর কিছু ওয়েস্টেজ কাগজ ছোট ছোট করে কেটে পাইপ এনে তেল মেখে বসিয়ে দিলাম।

IMG_20220819_085905.jpg

  • এবার আমি ছোট ছোট কাগজ গুলোর উপর আগে থেকে তৈরি করে নেওয়া ডোগুলো এক এক করে বসিয়ে দিলাম।

IMG_20220819_085915.jpg

IMG_20220819_085925.jpg

  • তারপর একটি ঢাকনা দিয়ে ঢেকে চুলায় বসিয়ে চুলার আগুন একবারে কমিয়ে দিয়ে ৩০ মিনিটের মত অপেক্ষা করলাম।

IMG_20220819_085957.jpg

  • ঢাকনা তুলে চুলা থেকে এক এক করে ডু গুলোকে উঠিয়ে নিলাম এতে করেই তৈরি হয়ে গেল আমার আজকের মজাদার তুলে নাস্তার রেসিপিটি।

IMG_20220819_090115.jpg

  • তো বন্ধুরা এভাবেই তৈরি হয়ে গেল আমার আজকের মজাদার তুলতুলে নাস্তার রেসিপিটি। রেসিপিটি পরিবেশনের জন্য প্রস্তুত। আশা করি আপনাদের আমার আজকে রেসিপিটি দেখে ভালো লাগবে। অবশ্যই বাসায় তৈরি করে খেয়ে দেখবেন, রেসিপিটি খেতে অনেক সুস্বাদু হয়ে থাকে।
আমার এই পোস্টটি পড়ার জন্য আপনাদেরকে অসংখ্য ধন্যবাদ। সেই সাথে এই পোষ্টে যদি কোন ভুল ত্রুটি হয়ে থাকে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন এবং এই পোস্টটি কেমন লেগেছে আপনারা আপনাদের মন্তব্যের মাধ্যমে জানাবেন।

শুভেচ্ছান্তে,@alauddinpabel

বিভাগরেসিপি
ডিভাইসরেডমি নোট ১০এস
লোকেশনগাজীপুর, ঢাকা, বাংলাদেশ 🇧🇩
রেসিপি মেড বাই@alauddinpabel
তারিখ১৯-০৮-২০২২ ইং
Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
Sort Order:  

অনেক সুন্দর নাস্তা তৈরি করেছেন আপনি। এটি নিঃসন্দেহে অনেক পুষ্টিকর একটি নাস্তা। সকাল বা বিকালে এ ধরনের নাস্তা খেতে খুবই ভালো লাগে। সুন্দর একটি রেসিপি শেয়ার করার জন্য আপনার অসংখ্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

জি আপু আপনি ঠিকই বলেছেন অনেক পুষ্টিকর ও সুস্বাদু একটি নাস্তা বাচ্চারা এই নাস্তা খুবই পছন্দ করবে। অসংখ্য ধন্যবাদ গঠনমূলক মন্তব্য করে পাশে থাকার জন্য।

অনেক সুন্দর একটি সন্ধ্যার নাস্তা শেয়ার করে আমার মত পেটুকদের অনেক উপকার করলেন ভাই। অনেক অনেক ধন্যবাদ।

যাক আপনার উপকার করতে পেরেছি জেনে খুব খুশি হলাম।

আপনি সুন্দর একটি নাস্তা তৈরি করে আমাদের মাঝে শেয়ার করেছেন । আসলেই এমন ধরনের নাস্তা খেতে আমার অনেক ভালো লাগে ।নাস্তাটা কিভাবে বানাতে হয় আপনি অনেক সুন্দর ভাবে ধাপে ধাপে আমাদেরকে শিখিয়ে দিয়েছেন। যা দেখে আমরা খুব সহজে নাস্তাটি তৈরি করে খেতে পারব ধন্যবাদ।

আপনাদের ভালো লাগাই আমার সার্থকতা। আপনার কাছে ভালো লেগেছে জেনে খুবই খুশি হলাম। অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে।

আপনি খুব সুন্দর করে তুলতে ময়দার নাস্তা রেসিপি করেছেন। এরকম রেসিপিগুলো খেতে সুস্বাদু হয়। আর আমার বাসায় মাঝে মাঝে তৈরি করা হয়। দেখতেও বেশ লোভনীয় লাগছে, অনেক ধন্যবাদ আপনাকে।

লোভনীয় লাগারই কথা কারণ এগুলো লোভনীয় একটা রেসিপি। আপনার কাছে ভালো লেগেছে জেনে খুব খুশি হলাম। অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে।

খুবই মজাদার একটি রেসিপি আপনি আমাদের মাঝে শেয়ার করেছেন বাসায় থাকলে এ ধরনের রেসিপি মাঝে মাঝেই খাওয়া হতো। অনেকদিন বাদে এই রেসিপিটি দেখে জিভে জল এসে গেল ধন্যবাদ আমাদের মাঝে রেসিপিটি শেয়ার করার জন্য।

আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ আমার রেসিপিটি আপনার ভালো লেগেছে জেনে খুব খুশি হলাম। এটাও জেনে খুশি হলাম যে বাসায় মাঝে মধ্যে এই ধরনের রেসিপি বানিয়ে খেয়ে থাকেন।

এই সিস্টেমে পিঠা তৈরি করতে আমি এই প্রথম দেখেছি খুবই সুন্দর হয়েছে পিঠাগুলো মনে হচ্ছে নরম নরম পাউরুটি কেকের মতো অসাধারণভাবে বানিয়েছেন এই পিঠাগুলো আবার অনেক পছন্দ হয়েছে আপনার আজকে হয়েছে তাই আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

জ্বী আপু একেবারে নরম তুলতুল তুলে খেতে অনেক দারুন লাগে। জেনে খুব খুশি হলাম আমার রেসিপিটা আপনার ভালো লেগেছে। অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে।

নতুন একটি অভিজ্ঞতা অর্জন করলাম আপনার এই সুন্দর রেসিপি প্রস্তুত করা দেখে। ইতো পূর্বে আমি কোনদিন এভাবে রেসিপি প্রস্তুত করি নাই। তবে ধন্যবাদ জানাবো আমার বাংলা ব্লগ কমিউনিটিকে। এখানে আসার পর অনেক কিছু জানতেও শিখতে পারছি।

আপনি ঠিকই বলেছেন এই কমিউনিটির মাধ্যমে আমরা অনেক কিছু শিখতে পারছি ও জানতে পারছি, তাই আমার পক্ষ থেকেও আমার বাংলা কমিউনিটিকে ধন্যবাদ জানাই। আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ চমৎকার মন্তব্য করে পাশে থাকার জন্য।

বাহ্ বেশ মজার একটা রেসিপি সম্পর্কে জানলাম তো ভাই। খুব বেশি কঠিন না একদম। ভালোই লাগলো আমার। ইস্ট দেওয়ার জন্য ভেতরে নরম তুলতুলে একটা ভাব হয়েছে নিশ্চয়। অনেক ধন্যবাদ ভাই মজাদার একটা রেসিপি শেয়ার করার জন্য।

জি দাদা একদম ঠিক ধরেছেন ইষ্ট দেওয়ার জন্য এতটা নরম তুলতুলে হয়েছে। এই জন্যেই খালি খেতেই মন চাচ্ছে। অসংখ্য ধন্যবাদ দাদা খুবই চমৎকার মন্তব্য করে পাশে থাকার জন্য।

আপনি আজকে আমাদের মাঝে অনেক সুন্দর ভাবে নাস্তা তৈরি করে শেয়ার করেছেন। আপনি অনেক সুন্দর ভাবে নাস্তা তৈরি পর্যায়ক্রমে আমাদের মাঝে শেয়ার করেছেন। আপনার নাস্তা তৈরি দেখে মনে হচ্ছে খেতে অনেক সুন্দর হবে। ধন্যবাদ এত সুন্দর ভাবে মজার একটি রাস্তা আমাদের মাঝে শেয়ার করার জন্য।

ভাই রাস্তা তৈরি করিনি নাস্তা তৈরি করেছিলাম হাহাহা মজা করলাম। যাই হোক কমেন্ট করার পর একটু চেক করে কমেন্ট সম্পূর্ণ করলে ভালো হয়। অসংখ্য ধন্যবাদ ভাই খুবই গঠনমূলক মন্তব্য করে পাশে থাকার জন্য।