আমার বাংলা ব্লগ - একটু হাসি || কৌতুক সপ্তাহ -০৫

in hive-129948 •  2 months ago  (edited)

jokes Cover-1.png

আমার বাংলা ব্লগের আরো একটি নতুন আয়োজন- এবিবি একটু হাসি’তে সবাইকে স্বাগতম জানাচ্ছি। এটা একটু ভিন্ন ধরনের উদ্যোগ, মনের উচ্ছ্বাসে প্রাণ খুলে হাসার আয়োজন। যেখানে সবাইকে নিয়ে প্রতি সপ্তাহের একটা দিন একটু অন্য রকমভাবে কৌতুকের সাথে আনন্দ করার প্রয়াস চালানো হবে। নিজেকে একটু অন্য রকমভাবে প্রকাশ করতে হবে, সবাইকে নিজের কথায় কিংবা কৌতুকে মাতিয়ে রাখতে হবে। বিষয়টি যেন আরো বেশী আকর্ষণীয় হয়ে উঠে সেই জন্য প্রতি সপ্তাহে পাঁচজনকে $২.০০ ডলার করে মোট $১০.০০ ডলার এর ভোট দেয়া হবে। তবে যারা এই আয়োজনের ক্ষেত্রে আন্তরিকতার পরিচয় দিবে এবং মজার কিছু শেয়ার করার চেষ্টা করবে, পুরস্কারের ক্ষেত্রে তাদেরকে অগ্রাধিকার দেয়া হবে।

এবিবি-ফান এর মাধ্যমে প্রতি সপ্তাহের বুধবার এবিবি একটু হাসি পোষ্ট শেয়ার করা হবে, যেখানে প্রতি সপ্তাহে ভিন্ন ভিন্ন বিষয় নির্বাচন করা হবে। আপনারা সেই বিষয়টির সাথে সামঞ্জস্য রেখে নিজের মতো করে কৌতুক অথবা মজার কোন হাসির অনু গল্প শেয়ার করবেন। এখানে মূল উদ্দেশ্য থাকবে হাসি, এমন কিছু শেয়ার করতে হবে সবাই যেন প্রাণ খুলে হাসার সুযোগ পায়। সেটা আপনার নিজের হতে পারে কিংবা সংগৃহীত হতে পারে, তবে এই ক্ষেত্রে অবশ্যই নিয়মের ভিতর থাকতে হবে, যেন কপিরাইট এর বিষয়টি সামনে আসতে না পারে।

আমাদের জীবনে মজার নানা ঘটনা রয়েছে, যেখানে হাসির একটা বিষয়ও সংযুক্ত রয়েছে। যেগুলো স্মরণ হলে এখনো আমরা মনে মনে হাসি অথবা লুকিয়ে হাসার চেষ্টা করি। আমরা আড়ালে থাকা সেই বিষয়গুলোকে সম্মুখে আনতে চাই এবং সকলের সাথে তা শেয়ার করার মাধ্যমে একটু অন্য রকমভাবে দিনটি উপভোগ্য করতে চাই। কৌতুকের ব্যাপারে একটা বিষয় মনে রাখতে হবে, কৌতুক মোটেও কপিরাইটেড না। তবে সেটা সংগৃহীত পুরনো কৌতুক হবে, যদি ক্রিয়েটিভ কৌতুক হয় যেটার লেখকের নাম জানা আছে সেটা কপিরাইটেড। আশা করছি বিষয়টি পরিস্কার এখন।

আজকের বিষয়ঃ

অফিস নিয়ে জোকস (বস ও কর্মচারী নিয়ে মজার জোকস/ হাসির অনু গল্প)

বিষয় নির্বাচনকারীঃ

@hafizullah

অংশগ্রহণের নিয়মাবলীঃ

  • কৌতুক/হাসির অনু গল্প সর্বোচ্চ ৭৫ শব্দের মাধ্যমে দিতে হবে।
  • একজন ইউজার শুধুমাত্র একটি কৌতুক/হাসির অনু গল্প শেয়ার করতে পারবে।
  • কৌতুক/হাসির অনু গল্প অবশ্যই উপরের বিষয়ে সাথে সামঞ্জস্য/সংযুক্ত থাকতে হবে।
  • এডাল্ট কিছু শেয়ার করা যাবে না, তবে সকলের সাথে ভাগ করে নেয়া যায় সেই ধরনের কিছু শেয়ার করা যাবে।
  • পোষ্টটি অবশ্যই রিস্টিম করতে হবে।

ধন্যবাদ সবাইকে।

break .png
Banner Annivr4.png
break .png
Banner.png

আমার বাংলা ব্লগের ডিসকর্ডে জয়েন করুনঃডিসকর্ড লিংক

break .png

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
Sort Order:  

কেরানী: ম্যানেজারকে বলল,আমি এত দিন ধরে তিনজন লোকের কাজ এক জনে করেছি । আমার মাইনে বাড়াতে হবে ।
ম্যানেজার: মাইনে এখন বাড়ানো অসম্ভব। কিন্তু তুমি বাকি দুজনের নাম বল তাদের এক্ষুনি বরখাস্ত করব।

ম্যানেজার কিন্তু বেশ সেয়ানা লোক। মাইনে বাড়ানোর কথা বলে তো কেরানীও বিপদে পড়ে গেল। এখন তো মনে হয় আমও যাবে, ছালাও যাবে। হা হা হা...

😜😆

বস বলছেন কর্মচারীকে-- আপনি কি মৃত্যুর পরের জম্নে বিশ্বাস করেন?
কর্মচারী-- জি স্যার।
বস-- হু করারেই কথা, গতকাল আপনি মায়ের মৃত্যুবার্ষিকীর কথা বলে অফিস থেকে ছুটি নিয়য়েছিলেন। পরে আপনার মা অফিসে এসেছিলো,, আপনার সঙ্গে দেখা করতে!!!

হা হা হা দারুন ছিল,,,,

খুবই মজার ছিল আপনার কৌতুকটা,না হেসে পারলাম না ভাই!

এটা সেরা ছিলো ভাই। 🤣🤣🤣

বস-কর্মকর্তার মধ্যে কথা হচ্ছে—
কর্মকর্তা: স্যার, এবার আমার বেতনটা একটু বাড়িয়ে দিলে ভালো হতো।
বস: কেন?
কর্মকর্তা: গত সপ্তাহে বিয়ে করেছি। তাই আগের বেতনে দুজনের চলাটা বেশ কষ্ট হবে, স্যার।
বস: শুনুন, অফিসের বাইরের কোনো দুর্ঘটনার জন্য অফিস কোনোভাবেই দায়ী নয়। আর তার জন্য জরিমানা দিতেও অফিস রাজি নয়।

হাহাহাহা । জরিমানা বেশ মজার ছিল ব্যাপারটা ।

হাহাহাহাহা 😀ভাই পারেনা ও বটে এত সুন্দর একটি উত্তর দিলেন অনেক ভালো লাগলো।

ধন্যবাদ ভাই

হাবলু ও সঞ্জুর মধ্যে কথা হচ্ছে—
সঞ্জু: কী রে, তুই অফিসে না গিয়ে এভাবে বসে আছিস কেন?
হাবলু: আর বলিস না। বড় কর্তা অফিসে আসতে বারণ করে দিয়েছেন। বস আমার ওপর খুব খেপা।
সঞ্জু: কেন?
হাবলু: অফিসে কাজ করার সময় একটা মশা মেরেছিলাম, এ কারণে হবে হয়তো।
সঞ্জু: শুধু একটা মশা মারার কারণে এই শাস্তি! তোর বড় কর্তা তো লোক ভালো না।
হাবলু: আরে বোকা, রেগেছেন কী সাধে! মশাটা যে উনার গালের ওপর বসে ছিল।

বস: মিস্টার মোকলেস আপনি কি আপনার সব কাজ কমপ্লিট করেছেন?
মোকলেস: জি স্যার সব কাজ কমপ্লিট করেছি।
বস: তাহলে আপনার কাজগুলো আমাকে দেখান।
মোকলেস: তাহলে তো স্যার আমার বাসায় যেতে হবে।
বস: কেন? কেন?
মোকলেস: আমি যে বাসার প্লেট বাটি ধোয়া, রান্নাবান্না, ঘর মোছা, কাপড়চোপড় ধোয়া, সব কাজ করে অফিসে এসেছি। বাসায় না গেলে বুঝবেন কি করে?
বস: বাহ! বেশ ভালো কথা। বস মনে মনে ভাবলেন তুমি তবু সব কাজ শেষ করেছ। আর আমার কাজগুলো তো বাসায় গিয়ে করতে হবে। তা না হলে বউ ঘরে ঢুকতে দিবে না।😃😃😃

নিঃসন্দে এটি অনেক হাসির একটি জোক ছিল, অনেক ভালো লাগলো যদি ও একটু দেরি করে পড়লাম।

বস ও কর্মচারীর মধ্যে কথা হচ্ছে👇

কর্মচারী: বস, আমার একটা দাবী আছে?
বস: বলো শুনছি!
কর্মচারী:এবার আমার বেতনটা একটু বাড়িয়ে দিলে হবে বস।
বস: কিন্তু, কেন বেতন বাড়াতে হবে তোমার ?
কর্মচারী: বস,গত সপ্তাহে বিয়ে করেছি।বউ নিয়ে তাই আগের বেতনে দুজনের চলা কষ্ট কর বস।
বস: শুনুন ! অফিসের বাইরের কোনো প্রকার দুর্ঘটনার জন্য অফিস কোনোভাবেই দায়ী থাকবে না। বিয়ে করে আপনি যতো বড় দুর্ঘটনা করেছেন এর জন্য অফিস কোন জরিমানাও দিতেও রাজি নয়।
কর্মচারী: বস,সত্যি আমি বিয়ে করে দুর্ঘটনার করে ফেলেছি,হাই হাই এইটা আমি কি করলাম🥵🥵😇

ভাইয়া আপনি পারেনও বটে অনেক মজা ছিল ধন্যবাদ আপনাকে

ইন্টারভিউ বোর্ডে এক যুবককে প্রশ্ন করা হলো
স্যারঃ ডাক্তার আসিবার পূর্বে রোগী মারা গেল এর ইংরেজি কি হবে?
চাকরি প্রার্থীঃ এটার ইংরেজি পারি না স্যার | আরবিটা পারি |
স্যারঃ ঠিক আছে আরবিটাই বল |
চাকরি প্রার্থীঃ ইন্নালিল্লাহ ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। হা হা হা

বসঃ যেদিন
থেকে আমি তোকে চাকরি থেকে
বরখাস্ত করেছি,
সেদিন থেকে প্রতিদিন তুই আমার
বাড়ির
সামনে পায়খানা করিস! কারন কি?
তোকে পুলিশে দেয়া উচিত!
বল্টুঃ স্যার, আমি শুধু আপনাকে এতটুকু
মনে করিয়ে দিতে চাই
যে, বরখাস্ত করেছেন
বলে আমি না খেয়ে মরে যাইনি!!!

হায় হায়,,কামডা করলো কি...!!🤣🤣 পায়খানা😁

হা,,হা,হা,হি হি হি,,,,

না খেয়ে মরে যায়নি, এটা প্রমাণ করার জন্য বাড়ির সামনে গিয়ে পায়খানা করে আসতে হবে। হা হা হা....

একদম,,,,
হি হি হি

বড় কর্তার সেক্রেটারির সঙ্গে বড় কর্তার স্ত্রীর কথা হচ্ছে----
সেক্রেটারিঃ ম্যাডাম, কয়েক দিন ধরে আপনাকে বেশ উদাস দেখা যাচ্ছে। কোন সমস্যা হয়েছে নাকি?
কর্তার স্ত্রীঃ আর বলো না । শুনেছি তোমার বস অফিসের এক নতুন কর্মচারীর প্রেমে পড়েছে।
সেক্রেটারিঃ বলেন কী! এটা কিছুতেই হতে পারে না। স্যার কিছুতেই আমাকে ধোঁকা দিতে পারে না।

বড়কর্তা তো লোক মোটেই সুবিধার না। হা হা হা...

হি হি হি...... ঠিক বুঝতে পেরেছেন।

বসের সঙ্গে ফোনে কথা হচ্ছে কর্মচারীর।

কর্মচারী: স্যার, আজকে আমার শরীরটা খুব খারাপ। আজ অফিসে আসতে পারব না।

বস: শরীর খারাপ থাকলে আমি কী করি জানো? আমার প্রেমিকার সঙ্গে রিকশায় ঘুরে বেড়াই, বেশ ভালো লাগে। তুমিও চেষ্টা করে দেখতে পারো।

কিছুক্ষণ পর বসকে ফোন করলেন কর্মচারী। বললেন, ‘স্যার, আপনার বুদ্ধিটা বেশ কাজে লেগেছে। রিকশায় ঘুরে খুব ভালো লাগছে।

আপনার প্রেমিকাও বেশ স্মার্ট, রিকশা ভাড়াটা সেই দেবে বলেছে

হায় হায় বলেন কি... কর্মচারীর উপকার করতে গিয়ে তো বস নিজেই বিপদে পড়ে গেল.. হা হা হা..

অফিসের বস কর্মচারীদের বললেন, ‘আজ আমার মনটা বেশ ভালো। বলো, তোমাদের কী দাবি দাওয়া আছে। আজ সব শুনব?’
এক কর্মচারী বললেন, ‘স্যার, আমরা ছুটি খুবই কম পাই। ছুটি একটু বাড়িয়ে দেওয়া যায় না?’
বস: কী রকম ছুটি চাও, বলো?
কর্মচারী: ছয় মাসের ছুটি, বছরে দুবার!

সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠে বেশ হাসলাম ভাই । আপনার জোকস পড়ে ।

এরকম ছুটি আমারও দরকার। বছরে দুইবার ছুটি দিলেই হবে। 😃😃

বেশ মজা পেলাম,,,

ভাইয়া অনেক সুন্দর ছিল জোকস অনেক সময় ধরে হেসেছি। 🤩

তাহলে তো সারাবছরই ছুটি!☺️☺️

হাহাহাহা ভাই সেই মজা পেলাম 😆

অসম্ভব মজা পেয়েছি ভাই।এমন ছুটি পেলে আরো ভালো লাগতো ভাইয়া। হা হা হা।

তাহলে আর কাজ করাই লাগবে না 🤣🤣🤣

বস ও কর্মচারীর মাঝে কথা হচ্ছে -
কর্মচারী -বস, আজ সকাল থেকেই বৃষ্টি হচ্ছে
বসঃ কোথায়,আমি তো বাহিরে রোদ দেখে আসলাম!
কর্মচারীঃ বৃষ্টি হচ্ছে আমার মনে, বউ যে চলে গেছে

কর্মচারীঃ বস আমাকে ১০০০ টাকা দিন আমি আপনাকে৷ ১০০০ টাকা দামের উপদেশ দিবো।
বসঃ (এই নেও) এবার বল।
কর্মচারীঃ বস ভবিষ্যতে এভাবে কাউকে টাকা দিবেননা।

😉

এটা সেরা ছিলো🤣🤣🤣

বসের সঙ্গে ফোনে কথা হচ্ছে কর্মচারীর।
কর্মচারী: স্যার, আজকে আমার শরীরটা খুব খারাপ। আজ অফিসে আসতে পারব না।
বস: শরীর খারাপ থাকলে আমি কী করি জানো? আমার প্রেমিকার সঙ্গে রিকশায় ঘুরে বেড়াই, বেশ ভালো লাগে। তুমিও চেষ্টা করে দেখতে পারো। 😊
কিছুক্ষণ পর বসকে ফোন করলেন কর্মচারী। বললেন, ‘স্যার, আপনার বুদ্ধিটা বেশ কাজে লেগেছে। রিকশায় ঘুরে খুব ভালো লাগছে। আপনার প্রেমিকাও বেশ স্মার্ট, রিকশা ভাড়াটা সেই দেবে বলেছে ।😛

আপনার এই জোকস, আপনার আগেই উপরে একজন শেয়ার করে দিয়েছে। পোস্ট করার আগে একটু দেখে নেবেন। ধন্যবাদ

কর্মচারীঃস্যার,কাল আমার ছুটি চাই।
বসঃকেন?
কর্মচারীঃস্যার,কাল আমার বিবাহ বার্ষিকী।
বসঃ সে তো রাতে কিন্তু সারাদিন ছুটি দিয়ে কি করবে?
কর্মচারীঃশোক দিবস পালন করব…!

এক অফিসের বস শুধু বিবাহিত লোকদেরই নিয়োগ দেন। একদিন তাঁর বউ তাঁকে জিজ্ঞেস করল, ‘তুমি কেবল বিবাহিতদেরই নিয়োগ দাও কেন?’
স্বামী বললেন, ‘কারণ তারা সহজে বাসায় যেতে চায় না, ধমক সহ্য করে আর মুখ বন্ধ রাখতে জানে।

জীবন বীমা অফিস:
বস কর্মচারীর ভেতর কথা-
বস: এই নাও এক কোটি টাকার চেক, বাইরে যে ব্যাক্তিটা বসে রয়েছে তাকে দিয়ে এসো।
কর্মচারী: স্যার উনি তো বড়লোক হয়ে যাবে, এতো টাকার চেক দিলেন কারণ কি?
বস: কারণ উনার বউয়ের নামে জীবন বীমা করা ছিল উঘনার বউ মারা গিয়েছে।
কর্মচারী: আমার বউয়ের নামেও তো করা আছে, তাহলে আপনি দোয়া করেন আমি অফিস থেকে যাওয়ার আগেই আমার বউটা মারা যায়। আমি আপনার কর্মচারী হিসেবে থাকতে পারছি না।

😂😂😂😂😂

অস্থির ভাই।।

কমেন্টটা লিখতেছিলাম আর নিজেই
একা একা হাসতেছিলাম। ভাগ্য ভালো আমার হাসি কেউ শুনে ফেলে নাই 🙃😃 কারণ হাসি শুনলে নিশ্চিত পাগলা গারদে রেখে আসতো 😭

নতুন বছরের প্রথম দিন বস বলছেন কর্মচারীকে, ‘গত বছর তুই বেশ ভালো কাজ করেছিস। এই নে ১০ হাজার টাকার চেক গিফট।
এ বছর এমন ভালো কাজ দেখাতে পারলে আগামী বছর চেকে সই করে দেব!’
ভালো করে কজ কর।

অফিসের বস কর্মচারীদের বললেন, ‘আজ আমার মনটা বেশ ভালো। বলো, তোমাদের কী দাবিদাওয়া। আজ সব শুনব।’
এক কর্মচারী বললেন, ‘স্যার, আমরা ছুটি খুবই কম পাই। ছুটি একটু বাড়িয়ে দেওয়া যায় না?’
বস: কী রকম ছুটি চাও, বলো?
কর্মচারী: ছয় মাসের ছুটি, বছরে দুবার!

সেয়ানা কর্মচারী। হা হা হা...

  ·  2 months ago (edited)

ভিক্ষুক ও বাড়িওয়ালার মধ্যে কথোপকথন-

ভিক্ষুক : আম্মাগো, আমারে কিছু ভিক্ষা দেন।

বাড়িওয়ালা : আজকে মাফ করুন।

ভিক্ষুক : আম্মাগো, আইজকা মাপজোখ করতে পারুম না। আইজকা আমি ফিতা আনি নাই!

কর্মচারীঃ বস আজকে কি বার?
বসঃ আজকে সাটারডে?
বসের কথা শুনে কর্মচারী দৌড়ে অফিসের পুকুরে গিয়ে সাঁতার কেটে আবার বসের সামনে এসে দাঁড়ালো, বস তো কর্মচারীকে দেখে অবাক।
বসঃ কিরে তোর এই অবস্থা কেন? মাত্রই না তোকে দেখলাম শুকনা কাপড়ে, ভিজলি কিভাবে?
কর্মচারীঃ বস আপনি না বললেন আজ সাটার ডে। তাই আমি সাঁতার কেটে আসলাম।
বসঃ আরে গাধা , সাটার ডে মানে হচ্ছে শনিবার। সাঁতার কাটার দিন না।
কর্মচারীঃ এ্যা! বলেন কি স্যার!