এবিবি-ফান প্রশ্ন-৬১ || নিজের ব্যাথা অন্য কেউ , বোঝে না কেন ?

in hive-129948 •  2 months ago 

Fun_Cover-4.png

আমার বাংলা ব্লগের নতুন উদ্যোগ- এবিবি-ফান এ সবাইকে স্বাগতম জানাচ্ছি। এটা সম্পূর্ণ ভিন্নধর্মী একটি উদ্যোগ, শুধুমাত্র ভিন্নভাবে কিছু বিষয় নিয়ে আনন্দ উপভোগ করার জন্যই করা হয়েছে। বিষয়টি যেন আরো বেশী আকর্ষণীয় হয়ে উঠে সেই জন্য প্রতিদিন পাঁচজনকে $২.০০ ডলার করে মোট $১০.০০ ডলার এর ভোট দেয়া হবে। তবে অবশ্যই যারা নিয়মগুলো মেনে এই উদ্যোগের সাথে সংযুক্ত হতে হবে।

এবিবি-ফান এর মাধ্যমে প্রতিদিন একটি প্রশ্ন শেয়ার করা হবে, বাস্তব বিষয় নিয়ে যা প্রতিনিয়ত আমরা আমাদের চারপাশে দেখে থাকি। তারপর সে প্রশ্নের উত্তরটি একটু ভিন্নভাবে দিতে হবে। আমরা প্রশ্নটির সঠিক উত্তর জানতে আগ্রহী নই কিংবা সঠিক উত্তরটি জানতে চাই না। বরং প্রশ্নটির ভিন্ন ধরনের এবং মজার কিছু উত্তর জানতে চাই। সুতরাং যে প্রশ্ন করা হবে, সেই প্রশ্ন সম্পর্কে আপনার নিজের ক্রিয়েটিভিটি, সৃজনশীলতা এবং মজার চিন্তা ভাবনা জানাতে হবে, যার ক্রিয়েটিভিটি যত বেশী আকর্ষণীয় ও মজার হবে, সে বিজয়ী হওয়ার ততো বেশী সম্ভাবনা তৈরী করতে পারবে। যেমন, প্রশ্ন করা হলো আকাশের রং কেন নীল? উত্তরগুলো এই রকম হতে পারে, আকাশের বউয়ের মন খারাপ, আকাশের বান্ধবীর পছন্দের রং নীল, এই রকম মজার মজার নানা ধরনের উত্তর দিতে পারবেন আপনারা। আশা করছি সকলের অংশগ্রহণে উদ্যোগটি সফলতা পাবে।

আজকের প্রশ্নঃ

নিজের ব্যাথা অন্য কেউ , বোঝে না কেন ?

প্রশ্নকারীঃ

@shuvo35

প্রশ্নকারীর অভিমতঃ

সবাই দেখে আর হায় হায় করে কিন্তু বুঝেও না বোঝার ভান করে ।

অংশগ্রহণের নিয়মাবলীঃ

  • উত্তরটি সর্বোচ্চ ৫০ শব্দের মাধ্যমে দিতে হবে।
  • উত্তর বা কমেন্টটি এডিট করা যাবে না।
  • একজন ইউজার শুধুমাত্র একবারই উত্তর দিতে পারবে।
  • অন্যের উত্তর কপি করা যাবে না।
  • উত্তর/কমেন্টটি অবশ্যই মজার হতে হবে।
  • এডাল্ট উত্তর/কমেন্ট দেয়া যাবে না।
  • পোষ্টটি অবশ্যই রিস্টিম করতে হবে।

ধন্যবাদ সবাইকে।

break .png
Banner Annivr4.png
break .png
Banner.png

আমার বাংলা ব্লগের ডিসকর্ডে জয়েন করুনঃডিসকর্ড লিংক

break .png

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
Sort Order:  

এখনকার এই পৃথিবীতে নিজের ব্যথা গুলো অন্যের কাছে শেয়ার করলে তারা সেগুলো হাস্যকর মনে করে । তাছাড়া এখনকার মানুষ শুধু উপরের সবকিছু দেখতে পায় কিন্তু ভিতরের কষ্টগুলো কখনো বোঝার চেষ্টা করে না। যখন একজন মানুষ হাজারো কষ্টের ভিতর থাকে তখন অন্য কেউ সেগুলোকে হাসি ঠাট্টা মজা বিভিন্ন বিষয় নিয়ে নেয়। এজন্যই হয়তো একজনের কষ্ট অন্যজন বোঝেনা

একদম বাস্তব কিছু কথা লিখেছেন ভাই অনেক ভালো লাগলো ধন্যবাদ আপনাকে

দুনিয়ার সবাই সুখের মৌমাছিরে ভাই, যতটা সুযোগ পায় শুধু মধু খেয়েই উড়ে যায়, আর সময় মতো একটা হোল ফুটিয়ে দেয়। ব্যথার যন্ত্রনা নিজেকেই ভোগ করতে হয়।

তাই তো দেখছিরে ভাই । বাস্তবিক অভিজ্ঞতা তো আজকাল তেমনটাই বলছে ।

আপনি খেলে যদি অন্যের পেট না ভরে, আপনি অসুস্থ হলে যদি অন্যকে ওষুধ না খেতে হয়। আপনার ওষুধ আপনাকে খেতে হয়। আপনার জীবন সংগ্রাম যদি আপনার নিজেকেই লড়তে হয়। তাহলে আপনার নিজের ব্যথা অন্য কেউ বুঝবে না এটাই স্বাভাবিক। আপনি কষ্ট পেলেই অন্যের ভালো লাগবে আর তখন সে চিন্তা করবে তার থেকে তো আমি অন্তত ভালো আছি। আর এটাই বর্তমান সমাজের দর্পণ।

শরীরের ব্যথা শরীর বোঝে,
মনের ব্যথা মন;
আমার ব্যথা কেউ বোঝে না;
কাঁদি সারাক্ষণ।
চোখের জলে ভেসে যাবে,
সকল ব্যথা গুলো;
চোখ মুছায়ে বলবে সবাই;
মুছে দিয়েছি ব্যথাগুলো।
আমার চোখে জল যেন,
তোমাদের কাছে ঝর্ণা;
ঝরনার জলে স্নান করো;
করোনা কেউ কান্না।

খুব চমৎকার একটি কবিতা বানিয়ে ফেলেছেন ধন্যবাদ আপনাকে ভালো লাগলো

আসলে কবিতাটা মনে চলে আসলো। তাই একটু একটু করে লিখে দিলাম। নিজের কষ্টগুলোতে এমনই হয়।

তারমানে নিজের অভিজ্ঞতা থেকে লিখেছেন ধন্যবাদ আপনাকে ভালো লাগলো ভাই।

হ্যাঁ ভাই সত্যি বলেছেন। আপনার জন্য অনেক শুভকামনা রইল। সুখের ভাগ সবাই নিতে চায়, দুঃখের ভাগ নয়।

একদম শতভাগ মনের কথা ভাই ধন্যবাদ আপনাকে সুন্দর ফিডব্যাক দেওয়ার জন্য

আপনাকেও অসংখ্য ধন্যবাদ ভাই। আমার বাংলা ব্লগে আপনার জন্য শুভকামনা।

ব্যথা তো অনুভব করতে হয়।আর হৃদয় ছাড়া তো অনুবভ করা যায়।চোখ দিয়ে তো আর হৃদয় দেখা যায় না। চোখ দিয়ে শুধু আন্দাজ করা যায়।তাই নিজের ব্যথা অন্য কেউ বোঝে না।

কারন অন্যের ব্যথা বোঝা যায় না অনুভব করা যায় তার জন্য অণুবীক্ষণ যন্ত্রের প্রয়োজন।আর এই যন্ত্রের অনেক দাম তাই কেউ নিজ পকেট থেকে টাকা খরচ করে অন্যের ব্যথা বুঝতে চায় না।

নিজের ব্যাথা অন্য কেউ যদি বুঝতো তাহলে মেয়েরা আর কখন ছ্যাকা দিত না। মেয়েরা ছেলেদের ব্যাথা বোঝে না তাই বারবার প্রেমে ছ্যাকা দিয়ে যায়।

নিজের ব্যাথা নিজের কাছে
অনুভব এর বিষয়,,
সহজে কেউ বোঝে না
কাঁদে না কারো হৃদয়।

অন্য কারো অনুভবে
নিজের অনেক জালা,,
নিজের নিজের কষ্ট নিয়ে
মনে দিয়েছে তালা।

হায়রে এমন জ্বালা।

আশা করি বোঝাতে পেরেছি
প্রাণপ্রিয় ভাই,
নিজের কষ্ট নিজে ছাড়া
বোঝার উপায় নাই।♥♥

ব্যাথাতে অভিনয়ের পরিমাণ বেশি থাকলে কেউ বুঝবে না, তাছাড়া ভালবাসা দূষিত হলেও কেউ কারো ব্যাথা বোঝে না।

একদম যথাযথ বলেছেন ধন্যবাদ আপনাকে ভালো থাকবেন

নিজের ব্যথা নিজেকেই আঘাত করে, হৃদয় থেকে অন্যকে আঘাত করে না তাই অন্যরা বুঝতে পারে না।

ব্যাথা ব্লুটুথ দিয়ে পার হয়না তাই বোঝে না।যদি হত তাইলে বুঝত।দ্বিতীয় কারন,সবারই নিজস্ব ব্যাথা থাকে,সে যদি অন্য সবার ব্যাথা বুঝতে যায় তাইলে ব্যাথার সাগরে ডুবে থাকবে,জীবনে কোন আনন্দের অনুভূতি পাবে না।তাই এই ম্যাকানিজম টা মানুষকে দেওয়া হয়েছে যাতে মানুষ একটু সুখেও থাকতে পারে।

আপনি ঠিকই বলেছেন আমাদের নিজেদের জীবনেই এত ব্যথা রয়েছে যে, সেটা কাটিয়ে উঠতে উঠতেই আমাদের সারা জীবন কেটে যায়। ফলে অন্যের ব্যথা অনুভব করার মত সময় হয়ে ওঠেনা।

ধন্যবাদ দাদা।

নিজের ব্যাথা অন্য কেউ বুঝবে কেন, শরীর যার, মন যার সে তো বুঝবে। নিজের ব্যাথা অন্য জনকে বুঝতে না দেওয়াই ভাল। সবাই সুযোগের জন্য হায় হায় দেয় কারো মনের ব্যাথা বুঝার জন্য নয়। কারো জন্য ব্যাথা না নেওয়া ভাল যেহেতু বুঝেনা তাই।😂🤣😋😉

যার ব্যথা সেই বোঝে অন্যরাও বোঝে কিন্তু বুঝতে চায় না কারণ যদি তার ভাগ নিতে হয়।।

আমার বান্ধবী যখন তরকারিতে লবণ কম দেওয়ার কারণে মাইর খায় তখন তো আর বলতে পারে না যে আজ আমার স্বামী মারছে।।🤭🤭🤭🤭

অনেক মজার একটা উত্তর দিয়েছেন অনেকক্ষ হাসলাম আপনার উত্তরটি পড়ে অনেক ধন্যবাদ।

ভাইয়া ব্যাথা কি মজা লাগে নি। মজা লাগলে ঠিকই বুঝতো। যে বিষয় মজা লাগে সেই বিষয় তারাতারি বুঝে ফেলে হা হা হা ।

ব্যথা প্রাইভেসি মেইনটেইন করতে খুব ভালোবাসে এই জন্য একজনের ব্যথা অন্য জনকে বুঝতে দেয় না।

হা হা হা... এটা বেশ ভালো ছিল।

যার ব্যথা সেই বোঝে। আপনি বাঁচলে বাপের নাম। বর্তমান পৃথিবীর এইতো নিয়ম। বর্তমান পৃথিবীর মানুষগুলো নিজের ব্যস্ত সর্বদা। কাহারো জন্য ভাবার সময় টুকু নেই কারো। তাই নিজের ব্যথা নিজের কাছে রাখাই শ্রেয়।

নিজের ব্যাথা অন্য কেউ বোঝে না কারন, তার মনটা গন্ডারের চামড়া দিয়ে বানানো।

নিজের ব্যথা অন্য কেউ বোঝেনা। কারণ তারা চোখ দিয়ে দেখে, কখনো হৃদয় দিয়ে অনুভব করে না।

আপনার এই মন্তব্যটা আমার কাছে বেশ ভালো লাগলো। খুব সুন্দর বলেছেন আপনি।

নিজের ব্যথা নিজেই অনুভব করতে পারা যায়, অন্য কেউ এই ব্যথা দেখতে পায় না ছুঁতে পারে না । সেজন্যই নিজের ব্যাথা অন্য কেউ বোঝেনা। 😎😎

এটাই হয়ত পৃথিবীর নিয়ম। একজনের ব্যথা যদি অন্য জন অনুভব করতে পারত তাহলে কেউ কাউকে ব্যথা দিত না।কিন্তু একজনকে ব্যথা না দিলে তো অন্য জনের ভাত হজম হবে না।তাই নিজের ব্যথা নিজেকেই বুঝতে হয় অন্য কেউ বুঝেনা।

ব্যথা যদি অংক হতো তাহলে সবাই বুঝতে পারত। এটা তো অনুভব করার ব্যাপার। বর্তমানে ভাইরাল ফিভারের কারণে সবার অনুভূতি নষ্ট হয়ে গেছে।

শরীর যখন আমার ব্যথা তো আমারি 🤭, অন্য কেউ বুঝবে কিভাবে?

প্রযুক্তির যুগে সব কিছুর উন্নয়ন হলেও এই একটি বিষয়ের উন্নয়ন হয়নি,,,,,তাই এখন পর্যন্ত নিজের ব্যাথা অন্য কেউ বুঝতে পারেনা,,

ডাক্তার সাহেব যদি রোগীর ব্যথার কথা বুঝতে তাহলে তো আর এভাবে ট্রিটমেন্ট করতে পারত না।

নিজের ব্যাথা অন্য কেউ , বোঝে না কেন ?

সহজ ব‍্যাপার ভাই শরীর যার ব‍্যাথা তার🙂🙂।।

আসলেই তো ভাই একদম সহজ ব্যাপার মজা পেলাম ধন্যবাদ আপনাকে

অন্যের ব্যাথা অনুভব করা কঠিন কেনন , তা অনুভব করার জন্য সেই রকম একটি মন যা সবার থাকে না।

এটা একদমই বাস্তবিক ভাইয়া, ভাইয়া কথা আছে না "যার গা তার ব্যথা " ভাইয়া যদি নিজের ব্যথা অন্যকে ভাগ করে দেয়া যেত তাহলে কোন মানুষেরই ব্যথা থাকত না। তাই নিজের ব্যথা নিজেকে সহ্য করতে হয় তাইতো অনেক সময় আমরা মুখ দিয়ে বলে থাকি নিজের ব্যাথা অন্য কেউ বুঝেনা।

নিজের ব্যথা কেউ কখনোই পরিপূর্ণভাবে বুঝতে পারবে না। এর অন্যতম প্রধান কারণ হচ্ছে মানুষ স্বার্থপর প্রাণী। আমরা নিজের স্বার্থটাকে বড় করে দেখি। আমরা নিজের ব্যথা বেদনা কষ্ট যতই ভালোভাবে মানুষকে বুঝিয়ে বলার চেষ্টা করি না কেন মানুষ মনোযোগ দিয়ে শুনলেও সেটা পুরোপুরি অনুভব করার চেষ্টা করে না ।কারণ অন্য কারো ব্যথা কষ্ট অনুভুতি নিজে অনুভব করে লাভ কি। মানুষের এমন মনোভাবের কারণেই একজন অন্যজনের ব্যথা বা কষ্ট বুঝতে চায় না।

আবেগ দিয়ে এই মন্তব্যটি করেছেন খুব ভালো লাগলো বাস্তব একটি রূপ তুলে ধরার জন্য ধন্যবাদ

বোঝার মতো একটা মন থাকা চাই,আর সেই মনটা থাকে না বলেই, বুঝতে পারে না।

বর্তমান ডিজিটাল যুগে ফেসবুক, ইউটিউব, টুইটার ইনস্টাগ্রামের দিকে তাকিয়ে সময় চলে যায়। তার সাথে তো আবার আছে টিক টক। তাহলে এত কিছুর মাঝখানে অন্যের ব্যথা অনুভব করার সময় কই?

এই দুনিয়ায় সবাই হচ্ছে প্রাক্টিক্যালে বিশ্বাসী ।ব্যাথা এমন একটি জিনিস যাকে প্রাক্টিক্যালি ধরা বা ছোঁয়ার কোন সুযোগ নেই। তাই নিজের ব্যাথা অন্যের বোঝার কোন উপায় নেই বা বুঝবে ওনা। আর এখন তো এমন সময় অন্যের সামনে কেউ মরে গেলে ও তার কাছে যায় না, সেক্ষেত্রে না দেখা ব্যথা বোঝার তো প্রশ্নই আসে না।

অনেক বাস্তব অভিজ্ঞতা থেকে উত্তর দিলেন মনে হচ্ছে ধন্যবাদ আপনাকে ভালো থাকবেন

জি ভাই।

নিজের ব্যথার কথাগুলো যদি সারাদিন আমরা ফেসবুক টুইটারে শেয়ার করতে থাকি তাহলে কিভাবে অন্যরা বুঝবে আমি নিজে কতটা কষ্টে রয়েছি। স্ট্যাটাস দেখে তো সবাই মজা নিবে ‌।

ব্যাথা যদি রাস্তায় টাকা হারানোর হয় , তাহলে সবাই সেই ব্যাথা বুঝবে এবং খুঁজবে । অন্যের মনের ব্যাথা বোঝার সময় নাই। যাই অন্যের হারানো টাকা খুঁজতে যাই। আপনারা যদি কেউ সেই টাকা খুঁজে পান তাহলে বলবেন, আমি অন্য কারো টাকা খুঁজতে শুরু করবো।

ব্যথা কি সুন্দরী রমণী নাকি যে অন্য কেউ দেখবে বা দেখার চেষ্টা করবে, যদি সুন্দরী রমণী হতো তাহলে মানুষজন একটু চেষ্টা করত। এজন্য যার যার ব্যাথা নিয়ে তারতারই থাকতে হয়।