বৃন্দাবন ঘাটের কিছু ছবি নিয়ে আজ আমি হাজির হয়েছি।

in hive-120823 •  2 months ago 

IMG-20220815-WA0013.jpg

(বৃন্দাবন ঘাট- হিন্দু ধর্মপিঠ)

IMG-20220815-WA0012.jpg

প্রিয় বন্ধুরা,
কেমন আছেন আপনারা সকলে? আশাকরি সবাই ভালো আছেন। আজ আমি আরো একবার চলে এসেছি বেশ কিছু ছবি নিয়ে আপনাদের মাঝে।

আমার জানা নেই আপনাদের মধ্যে কতজন ভারতের ধর্মস্থানগুলি দর্শনের সুযোগ পেয়েছেন।

যারা সুযোগ পেয়েছেন তারা আমার কথাগুলি বুঝতে পারবেন আর যারা সেই সুযোগ এখনও পান নি, তারা আমার কথাগুলো পড়লে বুঝতে পারবেন কেনো ভারতের এই ধর্মস্থান গুলি মানুষ দর্শনে উদ্যোগী হন।

যদিও সত্যি কথা বলতে আমি ধর্মস্থানে গেলেও মন্দিরের ভিতরে খুব কম প্রবেশ করেছি কিন্তু এই সকল জায়গার বিশেষত্ব কেবল যে মন্দির সেটা নয়, আশেপাশের পরিবেশ আপনাকে আকর্ষিত করবে।

এখানে দর্শনার্থীর গঙ্গা নদীর ধারে স্নান, পুজো সবটাই দেখবার বিষয়, আশ্চর্যের বিষয় হলো, আপনার মন যতই অশান্ত থাকুক না কেনো এই সকল জায়গায় গেলে অদ্ভুত ভাবে শান্ত হয়ে যায়।

IMG-20220815-WA0014.jpg


IMG-20220815-WA0015.jpg


IMG-20220815-WA0016.jpg

আমি এখনও পর্যন্ত মোটামুটি সব ধর্ম স্থানগুলি ঘুরেছি, এবং প্রতিটি জায়গা আমার অন্তত ভালো লেগেছে সেখানকার পরিবেশের জন্য।

অনেক সময় আমার খারাপ লাগা কাজ করেছে যখন দেখেছি সাধারণ মানুষের জন্য বেশ কিছু প্রতিবন্ধকতা থাকলেও নেতা মন্ত্রীদের ক্ষেত্রে সেসব বালাই নেই।

আমার খারাপ লাগার কারণ মূলত দুটি, এক সাধারণ মানুষের রক্ত জল করা অর্থের বিনিময়ে মন্দিরগুলি তৈরি হয় তাহলে তারা বঞ্চিত কেনো?

দ্বিতীয় কারণ, এই যে বিপুল অর্থের বিনিময়ে ঈশ্বরের মন্দিরগুলি সুসজ্জিত করা হয়, কিন্তু সত্যি কি ঈশ্বরকে কিছু দেবার সাধ্য মানুষের আছে?

আমরা যারা দর্শনার্থী বা ভক্তের দলে সামিল, তারা কিন্তু প্রত্যেকেই নিজের মনোবাঞ্ছা নিয়ে ঈশ্বরের সামনে দাড়াই।

তাহলে যেখানে তাঁর কাছ থেকেই চাইতে মানুষ তাকে দর্শনে যান, তবে তাঁকে কিছু দেবার সাধ্য সত্যি কি মানুষের আছে?

আমার কাছে ঈশ্বর এর সৃষ্টি এই প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের মূল্য অনেক বেশি, তাই মন্দিরের অন্দরমহল এর চাইতে গঙ্গার পাড় আমার কাছে বেশি আকর্ষণীয়।

আমি ধর্মান্ধ নই তবে এই গঙ্গার জলকে অপরিসুদ্ধ করবার পক্ষেও আমি নই।

আজ এখানেই শেষ করছি, ভালো থাকবেন সবাই, বৃন্দাবনের আরো বেশ কিছু ছবি আছে আমার কাছে, সেটা নিয়েই চলে আসবো আবার অন্য কোনোদিন।

ভালো থাকবেন এবং সুস্থ্ থাকবেন সবাই।

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
Sort Order:  

বৃন্দাবন দর্শন করার সৌভাগ্য এখনও হয়নি, জানিনা কখনো হবে কিনা, তবে আপনার শেয়ার করা ছবিগুলো দেখে ভীষন ভালো লাগলো @pulook. আপনি এতো জায়গায় ঘুরেছেন এবং প্রত্যেকটি জায়গায় ঘোরার অভিজ্ঞতা আমাদের সাথে এতো সুন্দর ভাবে শেয়ার করার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। খুব ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন, আর আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে থাকুন।