আমার এই পথ চলাতেই আনন্দ - কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

in hive-120823 •  2 months ago  (edited)

IMG_20220916_160430.jpg

প্রিয় পাঠকগণ,
কেমন আছেন সবাই? শুরুতেই আমি আন্তরিক ক্ষমা প্রার্থী কারণ দুটো দিন লিখতে পারিনি। আমার মা অসুস্থ ছাড়াও আমি কাজ থেকে অনেক দেরিতে ফিরেছি।

যদিও আমাকে অবগত করা হয়েছিল এখানে প্রতিদিন লেখা নিজের জন্য ভালো, কারণ একজন নতুন লেখক হিসেবে পরিচিতি লাভ করতে হলে নিজের লেখা দেবার পাশাপাশি অন্যের লেখায় নিজের মতামত ভাগ করে নিতে হয়।

আমরা আসলে জ্ঞান পাপী ভাব দেখাই বোঝার কিন্তু আসলে কিছুই জানিও না বুঝি ও না। বড়ো বড়ো কথা বলে সমাদর পেতে অভ্যস্থ, লজ্জা না করেই অকপটে স্বীকার করছি আমিও তাদের দলেই পড়ি।

IMG_20220916_160410.jpg


IMG_20220916_160532.jpg

আমি আজ ভাবলাম কিছু ফুলের ছবি যেগুলো আমার আগেই তোলা ছিল সেগুলো আজ আপনাদের সাথে ভাগ করে নি। কারণ দুদিন না লিখতে পারার কারণে অনেকেই রুষ্ঠো আর ফুল দিয়ে কিন্তু মান ভাঙ্গানো যায়।

আপনারাও নিশ্চই সময় অসময় ফুলকে কাজে লাগিয়েছেন নিজেদের প্রিয় মানুষদের মান ভাঙ্গানোর জন্য।

দুদিন আমি আরো বেশ কিছু কাজ এই প্ল্যাটফর্মের বিষয় শিখেছি, সেগুলো হলো অন্যান্য কমিউনিটিতে কিভাবে যোগদান করতে হয়, নিজের ওয়ালেট এ কোন key দিয়ে লগ ইন করতে হয়, কিভাবে পাওয়ার আপ করতে হয় ইত্যাদি।

শেখার ইচ্ছে মানুষকে এগিয়ে যেতে সাহায্য করে, যদিও আমি লিখতে পারিনি কিন্তু এই কাজ গুলো এখানে জানাটা জরুরি, কারণ আমাদের শেখানো হয়ে এখানে যেকোনো একটা ক্লাব আমাকে মেনে চলতে হবে, তাই সাত দিন বাদে থেকে আমাকে পাওয়ার আপ করতে হবে।

তাই যদি কাজ জানা না থাকে তাহলে সেটা করা আমার একার পক্ষে সম্ভব নয়।

কাজেই সেটাও একটা অত্যন্ত জরুরি বিষয় ছিল, তবে এরপর থেকে আশাকরি আমার লেখা আপনারা রোজ দেখতে পাবেন।

আমাকে যেহেতু রোজ রান্না করেই অফিস যেতে হয় আর এই কমিউনিটিতে যেহেতু রান্না লেখা সম্ভব তাই বেশিরভাগ সময় আমি আমার বিভিন্ন রান্না আপনাদের সাথে ভাগ করে নেব।

আপনারা যারা খেতে ভালোবাসেন তারা বাঙালি রান্নার পদ্ধতি জেনে নিতে পারবেন আমার লেখাকে ইংরিজিতে অনুবাদ করে।

আমি নিজেও অবশ্যই একই পথ অবলম্বন করবো। আজ আমার অফিস এ বসে মধ্যাহ্ন ভোজ এর বিরতিতে নিজের লেখাটি লিখে আপনাদের মাঝে ভাগ করে নিলাম।

ভুল ত্রুটি ক্ষমা করে দেবেন, এবং আপনার অভিজ্ঞতা দ্বারা শিখিয়ে নেবেন। ভালো থাকবেন সবাই এবং আনন্দে বাঁচবেন।

সবসময় সুগন্ধ বিতরণ করুন এই ফুলগুলোর মত নিজের জ্ঞান বিতরণের মাধ্যমে, তবে অবশ্যই যদি সেটা নিজে মেনে চলেন।

Authors get paid when people like you upvote their post.
If you enjoyed what you read here, create your account today and start earning FREE STEEM!
Sort Order:  
Loading...

ফুলের ছবি গুলো খুবই সুন্দর তুলেছেন @baishakhi88 দিদি। আপনার রান্নার রেসিপি গুলো দেখার অপেক্ষায় রইলাম। ভালো থাকবেন।

অনেক ধন্যবাদ, নিশ্চই সাধ্যমত চেষ্টা করবো, নিজের বাড়িতে তৈরি খাবার ভাগ করে নিতে।

যাক আমি তো ভাবলাম আপনি রামধনু কেবলমাত্র বর্ষার পরেই আপনাকে দেখা যাবে। ভালো লাগলো আপনার লেখা পুনরায় দেখতে পেয়ে।

আমি সত্যি লজ্জিত, এটা সঠিক যে মানুষ ফাঁকি দেবার সুযোগ বেশি খোঁজে, কাজ করবার চাইতে, আমিও সেটাই সত্যি বলতে করি অনেকসময়, বাড়তি গল্পো বানিয়ে, কাজের চাপ এড়ানোর জন্য।

আশাকরি এইবার থেকে আপনার লেখা দেখার সুযোগ পাবো।

আমি আপনাকে হতাশ হবার সুযোগ না দেবার চেষ্টা করবো।